স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীর প্রতিযোগিতার উদ্বোধন

বাংলাদেশ মেইলঃঃ

 

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক ফোরাম জাতীয় নির্বাহী কমিটির স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদ্যাপন পরিষদের জাতীয় নির্বাহী কমিটির আহ্বায়ক সৈয়দ মোস্তফা আলম মাসুম বলেছেন, বাংলাদেশের ইতিহাস নতুন প্রজন্মের কাছে ভুলভাবে উপস্থাপন করা হচ্ছে। বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম শুরু হয়েছিল পাকিস্তানের পূর্ব বাংলার মানুষের প্রতি অবজ্ঞা, অবহেলা এবং অসহযোগিতার কারণে যা পরবর্তীতে নির্বাচন পর্যন্ত একনায়কতন্ত্রের দিকে গিয়ে ছিল। ১৯৭১’র সালের স্বাধীনতা যুদ্ধের মূল ভিত্তি ছিল গণতন্ত্র এবং বাকস্বাধীনতা। অত্যন্ত দুঃখের বিষয় স্বাধীনতা সংগ্রামের ৫০ বছর পরও বাংলাদেশের মানুষ গণতন্ত্র এবং বাক স্বাধীনতার জন্য এখনও রাজপথে রক্ত ঝড়াতে হচ্ছে। তাই আগামী দিনে বাংলাদেশের দেশপ্রেমিক জনগণ বাকস্বাধীনতা এবং গণতন্ত্রের জন্য আবারও আন্দোলনের ব্যাপক প্রস্তুতি গ্রহণ করার মাধ্যমে বাংলাদেশ থেকে চিরতরে পেশী শক্তি এবং স্বৈরতন্ত্রের পতন ঘটানো নৈতিক দায়িত্ব। মেজর জিয়ার স্বাধীনতা সংগ্রামের সশস্ত্র কর্মকান্ডকে বর্তমান সরকার ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে ইতিহাস বিকৃতি করে যাচ্ছে। বাংলাদেশের সংগ্রামী জনগণ কোনদিন তা মেনে নিবে না। মেজর জিয়াই স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়ে বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের মূল সূচনা করেছিলেন বলে তিনি উল্লেখ করেন। তিনি আজ ২১ মার্চ সকাল ১০ ঘটিকার সময় চট্টগ্রাম মেট্টোপলিটন সাংবাদিক ইউনিয়ন মিলনায়তনে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক ফোরাম জাতীয় নির্বাহী কমিটির স্বাধীনতা সুবর্ণ জয়ন্তী উদ্যাপন পরিষদের প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতির বক্তব্য রাখতে গিয়ে এ কথা বলেন। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আফরোজা জলি, মোঃ একরামুল হক, মোঃ এ জে সম্রাট, পারভীন আক্তার ফারহানা রোজা, মোঃ সাজ্জাদ হোসেন খান, সেলিনা তানজিনা, ফরিদা ইয়াসমিন, মোঃ সালাহ উদ্দিন, শিমুল দেব, মোঃ সেলিম মাহমুদ, এন কান্তি ভৌমিক, মোঃ আশরাফ হোসেন, মোঃ সাইফুল আলম, ইমতিয়াজ হোসেন জনি, রাজিব মালাকার প্রমুখ। আগামীকাল ২২ মার্চ, সোমবার, সকাল : ৯.৩০ মি: চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা। বিষয় : ক- বিভাগÑজাতীয় পতাকা ও শাপলা ফুল। খ- বিভাগ স্মৃতি সৌধ ও উদিত সূর্য। গ- বিভাগÑমেজর জিয়া স্বাধীনতা ঘোষণা ও মানচিত্র। রচনা প্রতিযোগিতা (লিখে জমা দিতে হবে)। বিষয় : ক- বিভাগ মেজর জিয়াউর রহমানের শৈশবকাল ৩০০ শব্দ। খ- বিভাগ : মহান মুক্তিযুদ্ধে মেজর জিয়া-৭৫০ শব্দ। গ- বিভাগ বাংলাদেশের বহুদলীয় গণতন্ত্র, রাষ্ট্রপতি জিয়া ১০০০ শব্দ। স্থান : ইসলামিয়া সিটি কনভেনশন হল, কে.সি দে রোড, সিনেমা প্যালেস, চট্টগ্রাম। ২৪ মার্চ বুধবার, বিকাল : ৩.৩০ মি: সুবর্ণ জয়ন্তী আলোচনা সভা এবং প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে বীর উত্তম শহীদ জিয়া পদক’ ২১ এবং সনদ বিতরণ অনুষ্ঠান। স্থান : চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব মিলনায়তন (লিফ্ট-৮) জামাল খান, চট্টগ্রাম। ২৫ মার্চ বৃহস্পতিবার দুপুর ১.৩০ মিনিটে বিএনপির মহানগর দলীয় কার্যালয়স্থ সংলগ্ন মসজিদে বীর শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় দোয়া, মিলাদ মাহফিল ও বিশেষ মুনাজাত। ২৬ মার্চ শুক্রবার সকাল ৯ ঘটিকার সময় স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের প্রথম মাজার রাঙ্গুনিয়ায় পুস্পস্তবক অর্পণ, দুপুর ১২ টায় চট্টগ্রাম ষোলশহরস্থ স্বাধীনতার স্মৃতিস্তম্ভ শহীদ জিয়ার স্মৃতি বিজড়িত বিপ্লব উদ্যানে পুস্পস্তবক অর্পন এবং ২৭ মার্চ রোজ শনিবার বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির চট্টগ্রামের কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ। উক্ত অনুষ্ঠান সফল করার জন্য সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।