কর্মসূচি নিয়ে ধোঁয়াশা
নতুন করে ৪৮ ঘন্টা হরতালের ঘোষনা হেফাজতের!

বাংলাদেশ মেইল ::

রবিবারের হরতালে পুলিশ ও ছাত্রলীগ-যুবলীগের নেতাকর্মীদের বাধা দেবার অভিযোগ এনে হরতাল আরো ৪৮ ঘন্টা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত জানিয়েছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ। দুপুরে বাইতুল মোকাররমে হেফাজতে ইসলামের নেতারা এ ঘোষনা দেন।

হেফাজতের হরতাল আরো ২৪ ঘন্টা বাড়িয়ে সোমবার পর্যন্ত করা হয়েছে বলে যে সংবাদ প্রচার হচ্ছে তা সত্য নয় দাবি করেছেন  মাওলানা জাকারিয়া নোমান ফয়েজি।  আমীর আল্লামা জোনায়েদ বাবুনগরী আজ সন্ধ্যা ৬ টায় হরতালের সব কার্যক্রম স্থগিত করেছেন।

আজ রবিবার বিকেল সাড়ে ৫ টায় হেফাজতের কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক মাওলানা জাকারিয়া নোমান ফয়েজি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

হেফাজতের প্রচার সম্পাদক বলেন, হরতাল বাড়ানোর বিষয়টি সম্পূর্ণ গুজব। সন্ধ্যার পর ছাত্রদের মাদ্রাসায় ফিরতে বলা হয়েছে। পরবর্তী কর্মসূচী আমীর সাহেব ঘোষণা করবেন।

এদিকে চট্টগ্রামের হাটহাজারী মাদ্রাসায় সংবাদ সম্মেলন করছেন হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা বাবুনগরী। তিনি সংবাদ সম্মেলনে দেশ জুড়ে অরাজকতা সৃস্টির জন্য সরকারকে দায়ী করেন। প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, সরকার দোষীদের বিরুদ্ধে কোন ধরনের ব্যবস্থা গ্রহন না করে দলের নেতাকর্মিদের লেলিয়ে দিয়েছে। তারা পুলিশের সহয়তায় ধর্মপ্রান মুসলমানদের উপর হামলা করছে।

সোমবার ও মঙ্গলবার লাগাতার হরতালের ঘোষনা সম্পর্কে হেফাজতে ইসলামের সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী জানান,এমন সিদ্ধান্ত হলে আনুষ্ঠানিকভাবে হরতাল বৃদ্ধি সম্পর্কে আমরা জানাবো। আজকের দিনের হরতাল কর্মসূচি পালন করতে গিয়ে আমাদের অনেকেই হতাহত হয়েছে। পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে নতুন করে হরতাল ডাকার কথা ভাবছি না। এই সময়ের মধ্যর যেহেতু শবে বরাত রয়েছে, আমরা ভেবে সিদ্ধান্ত নিতে চাই।

হেফাজত সমর্থক হতাহতের জেরে ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে ব্রাহ্মণবাড়িয়া। ভাঙচুর, অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে নগরজুড়ে। হামলা হয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপার কার্যালয়ে। ভাঙচুরের পাশাপাশি সেখানে থাকা গাড়িতে অগ্নিসংযোগ করা হয়। এরপাশেই ২ নং ফাঁড়িতেও আগুন দেয়া হয়। ফাঁড়ির নিচে থাকা কয়েকটি মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেয়া হয়। সাকির্ট হাউজ প্রাঙ্গণে থাকা ১১টি বিভিন্ন ধরনের গাড়ি ভাঙচুর করা হয়েছে। পার্শ্ববর্তী জেলা পরিষদের সদর ডাকবাংলোতেও মোটর সাইকেল ভাঙচুর করা হয়। গাড়ি ভাঙচুর করা হয় মৎস্য অফিসের।