হেফাজত কর্মিদের আগুনে পুড়েছে হাটহাজারী ডাকবাংলো

বাংলাদেশ মেইল ::

গতকালের সংঘর্ষের ঘটনায় ৪ জন নিহত হবার পরও শান্ত হয়নি হাটহাজারী সদর। থমথমে পরিস্থিতি বিরাজ হাটহাজারীতে। শনিবার রাতে হাটহাজারীর ডাকবাংলোতে আগুন দিয়েছে বিক্ষুব্ধ হেফাজত কর্মিরা। শনিবার (২৭ মার্চ) রাত আটটার দিকে এ হামলা চালানো হয়। এসময় তারা ডাকবাংলাের নতুন ভবনে হামলা করে আগুন জ্বালিয়ে দেয়। তাছাড়া তিনটি মোটরসাইকেল আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয়া হয়।

দু’দিন ধরে চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি সড়ক অবরোধ করলে তাদের সরাতে পারেনি প্রশাসন। মাদ্রাসার সামনে সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে হাটহাজারী মাদ্রাসার ছাত্ররা।

বিপুল আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়নের মধ্যেও শনিবার রাতে উপজেলা প্রশাসনের ডাকবাংলোতে আগুন দেয় হেফাজতের বিক্ষুব্ধ কর্মীরা।

ডাকবাংলোর কেয়ারটেকার সৈয়দ আলাউদ্দিন বাদল জানান, রাতে হঠাৎ একদল দুর্বৃত্ত ডাকবাংলোয় ঢুকে ভাঙচুর করে। এসময় তিনটি মোটরসাইকেলে আগুন জ্বালিয়ে দেয়। মাদ্রাসার বিক্ষোভের কারণে দোকানপাট বন্ধ থাকায় হামলাকারীরা আগুন দিয়ে পালিয়ে যায়।

এর আগে, শুক্রবার   হাটহাজারী থানা, ইউনিয়ন ভূমি অফিস ও ডাক বাংলোতে হামলা চালিয়েছে হেফাজত সমর্থকরা। পাশাপাশি তারা ভূমি অফিসে অগ্নিসংযোগও করেছিল। গতকালের সংঘর্ষে নিহতদের   মরদেহ পুলিশি পাহারায় নিজ নিজ এলাকায় পৌঁছে দিয়েছে পুলিশ। তবে নিহতদের একজনের লাশ হাটহাজারী নিয়ে গিয়ে জানাজা পড়ানো হয়।