আটারো বিএনপি নেতা কর্মি আটক
ডাঃ শাহাদাত হোসেনকে আটক করেছে গোয়েন্দা পুলিশ

বাংলাদেশ মেইল ::

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির আহবায়ক ডাঃ শাহাদাত হোসেনকে গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল আটক করে নিয়ে গেছে  সোমবার সন্ধ্যা ছয়টার দিকে নগরীর প্রবর্তক এলাকার ট্রিটমেন্ট হাসপাতাল থেকে তাকে আটক করে নিয়ে যায় গোয়েন্দা পুলিশ।

এসময় ডাঃ শাহাদাতের ব্যক্তিগত সহকারী মারুফ হোসেন ও মোহাম্মদ আলী নামের অন্য এক বিএনপি নেতাকেও আটক করে নিয়ে যাওয়া হয়।

নগর বিএনপির সাবেক দপ্তর সম্পাদক মোহাম্মদ ইদ্রিস জানান, সন্ধ্যা ছয়টা দিকে ট্রিটমেন্ট হাসপাতাল থেকে তাকে আটক করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এর আগে আরো ১২ জনকে পুলিশ আটক করে।

সিএমপি কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর  জানান, ‘সন্ধ্যায়  ডা. শাহাদাত ও তার পিএস মারুফসহ তিনজনকে আটক করা হয়।’

চট্টগ্রাম নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) পলাশ কান্তি নাথ বলেন, বিএনপির কর্মসূচি পূর্ব নির্ধারিত ছিল। তারা মিছিল নিয়ে এসে পুলিশ দেখে হঠাৎ পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল, ককটেল নিক্ষেপ শুরু করে। এ সময় ৫-৬ জন পুলিশ সদস্য আহত হয়। পরে চার নারীসহ ১৫ নেতাকর্মীকে আটক করা হয়।

সোমবার (২৯ মার্চ) দুপুর ৩টার নাসিমন ভবনের সামনে পুলিশ বিএনপি কর্মীদের সংঘর্ষের পর সড়কে আগুন দেয়া হয়। চট্টগ্রামে নগর বিএনপির সমাবেশকে কেন্দ্র করে পুলিশের সঙ্গে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। দুপক্ষের সংঘর্ষে ককটেল বিস্ফোরণ ও ইট পাটকেল নিক্ষেপ করা হয়েছে। সড়কে অগ্নিসংযোগও করা হয়েছে। এসময় বেশ কয়েকজন পুলিশ সদস্য আহত হয় ।