হেফাজাতের তাণ্ডবের ঘটনায় চট্টগ্রামে সাত মামলা

বাংলাদেশ মেইলঃঃ

চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে হেফাজতের তাণ্ডব ও পটিয়া থানায় হামলার ঘটনায় সাতটি মামলা হয়েছে। মঙ্গলবার (৩০ মার্চ) রাতে হাটহাজারী থানায় ও পটিয়া থানায় এসব মামলা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে চট্টগ্রাম জেলা ‍পুলিশ সুপার (এসপি) এস এম রশিদুল হক জানান, হাটহাজারি থানায় হামলা ও সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশ চারটি মামলা করেছে। আর উপজেলা ও ইউনিয়ন ভূমি অফিসে ভাঙচুর এবং অগ্নিসংযোগের ঘটনায় ভূমি অফিসের পক্ষ থেকে দুইটি মামলা করা হয়েছে। অপরদিকে পটিয়া থানায় হামলার ঘটনায় একটি মামলা করা হয়েছে।

তিনি আরো জানান, সন্ত্রাসবিরোধী আইনে মামলাগুলো হয়েছে। তদন্তের মাধ্যমে জড়িত ব্যক্তিদের শনাক্ত করা হবে।

উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) শরীফ উল্যাহ পূর্বকোণকে বলেন, ওইদিনের হামলায় দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, তার কার্যালয়ে হামলার পাশাপাশি সরকারি গাড়িতেও আগুন লাগানো হয়েছে। যেটা পুরোপুরি ভষ্মীভূত হয়েছে। সদর ইউনিয়ন ভূমি অফিসের রেকর্ড রুমে ভাঙচুর করা হয়েছে। সেখানে থাকা বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ ফাইলপত্র জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছে। যেগুলোর মধ্যে খাস জমির রেজিস্ট্রার, খাজনা বই, খতিয়ানসহ বিভিন্ন ধরনের গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র আছে।

সহকারী কমিশনার শরীফ বলেন, যেসব নথিপত্র জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছে সেগুলোর কিছু নতুন করে সংগ্রহ করা গেলেও কিছু কিছু নথিপত্র আর সংগ্রহ করা যাবে না। যার কারণে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হবে সাধারণ জনগণ।

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর দিনে শুক্রবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের বিরোধিতা করে গত শুক্রবার জুমার নামাজের পর ঢাকার বায়তুল মোকাররম মসজিদ এলাকায় বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে পুলিশ ও সরকারি দলের নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষ হয়। প্রতিবাদে হাটহাজারীতে মাদ্রাসাশিক্ষার্থীরা থানায় হামলা চালালে পুলিশ আত্মরক্ষার্থে গুলি ছোড়ে। এতে হাটহাজারীতে চারজন নিহত হন।