দুই ঘন্টা অবরুদ্ধ মমতা

বাংলাদেশ মেইল ::

পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা নির্বাচন চলাকালে বিজেপি সমর্থকদের তাণ্ডবে নন্দীগ্রামের ভোটকেন্দ্রে দুঘণ্টা অবরুদ্ধ থাকেন মমতা বন্দোপাধ্যায়। আনন্দবাজার ও এনডিটিভির প্রতিবেদনে এই তথ্য পাওয়া গেছে।

ভোটে কারচুপির অভিযোগ পেয়ে বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সোয়া ১টার দিকে নন্দীগ্রামের বয়াল মক্তব প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বুথে সরেজমিনে তদারকিতে যান মমতা। সেখানে তাকে দেখেই ‘জয় শ্রীরাম’ শ্লোগান দেওয়াসহ পরিস্থিতি উত্তপ্ত করে তোলে বিজেপি সমর্থকরা, থেমে থাকেনি তৃণমূল কর্মীরাও। একপর্যায়ে পরিস্থিতি হাতাহাতিতে পৌঁছালে বুথেই আটকে পড়েন মমতা।

পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে মোতায়েন করা হয় কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা বাহিনী। তারা বহু কষ্টে মমতাকে বের করে আনতে সক্ষম হলেও কেনো দেরিতে এসে পৌঁছালো, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে তৃণমূল।

এদিকে, ঐ বুথ থেকে বের হয়ে জনসাধারণের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন মমতা। তিনি বলেন, নন্দীগ্রাম নিয়ে নয়, আমি চিন্তিত গণতন্ত্র নিয়ে। এখানে ভোটে কারচুপি হয়েছে।

মমতাকে বের করে আনার পরও পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়নি। অনাকাঙ্খিত ঘটনা এড়াতে ঘটনাস্থলে প্রশাসন নজরদারি করছে।

এর আগে, মমতা জানান বুথে প্রবেশের আগেই স্থানীয়রা ও তৃণমূল কর্মীরা তার কাছে ভোটে অনিয়মের অভিযোগ আনেন। মমতা জানান ৪০টিরও বেশি মৌখিক অভিযোগ পেয়েছেন তিনি। সেখানে যারা ভোট দিচ্ছে, বেশিরভাগই অবাঙালি। বহিরাগতদের দিয়ে বিজেপি ভোট চুরি করছে বলেও গণমাধ্যমকে জানান মমতা।