সিলেটে কোয়ারেন্টিনে থাকা যুক্তরাজ্য ফেরত নারীকে হোটেল কর্মচারীর যৌন হয়রানি

বাংলাদেশ মেইল ::

সিলেটে প্রশাসন নির্ধারিত হোটেলে কোয়ারেন্টিনে থাকা যুক্তরাজ্য ফেরত এক নারীকে হোটেল কর্মচারী কর্তৃক যৌন হয়রানির অভিযোগ ওঠেছে।

বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) নগরীর হযরত শাহ জালাল (র.) দরগাহের প্রধান ফটকের সামনে অবস্থিত হোটেল নুরজাহানে ঘটনাটি ঘটে।

এ ঘটনায় জড়িত হোটেল নুরজাহানের কর্মচারী
শাহীন আহমদকে আটক করেছে পুলিশ।
জানা যায়, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টা থেকে রাত সাড়ে ১২টা পর্যন্ত হোটেলের ওই কর্মচারী যুক্তরাজ্য ফেরত ওই নারীকে মোবাইলে ফোন দিয়ে বার বার বিরক্ত করেন।

এক পর্যায়ে রুমের ভেতর প্রবেশ করে যৌন হয়রানির চেষ্টা করেন। এসব বিষয় ওই নারী দেশে থাকা স্বজনদের জানালে তারা পুলিশকে অবহিত করেন।

খবর পেয়ে কোতোয়ালী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়। ঘটনার বিবরণ শুনে পুলিশ শাহীন নামের ওই কর্মচারীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে।
জামাল আহমদ নামে এক প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, কোয়ারেন্টিনে থাকা লন্ডন প্রবাসীর রুমে গিয়ে ওই নারীর হাতে পায়ে ধরে বিভিন্নভাবে যৌন হয়রানির চেষ্টা করে। শুরুতে হোটেল কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি অবগত করলে তারা পাত্তা দেয়নি।

ওই নারীর স্বজনরা অভিযোগ করেন, হোটেল কর্তৃপক্ষকে ঘটনার সিসি ফুটেজ দেখাতে বলা হয়। কিন্তু তারা সিসি ক্যামেরা নষ্ট বলে জানায়। ওই নারীর স্বজনরা অভিযোগ করেন, একটা বড় নামীদামী হোটেল, অথচ সিসি ক্যামেরা নষ্ট, এটা ভাবাই যায় না।

ঘটনাস্থলে থাকা কোতোয়ালী থানার শাহজালাল (র.) তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আবু সাঈদ এ তথ্য নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল থেকে শাহীনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছি। তাকে থানায় নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

এর আগে সকালে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে করে ওই নারীসহ ৮৩ জন যাত্রী সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছান।

এসব যাত্রীর মধ্যে হোটেল নূরজাহানে ৬, হোটেল অনুরাগে ১১ জন, হোটেল হলিগেটে ১৭, হোটেল হলি সাইডে ৩, হোটেল স্টার প্যাসিফিকে ১, হোটেল লা রোজে ১৭, হোটেল লা ভিস্তায় ৮, হোটেল রেইন বো গেস্ট হাউজে ১০, রয়েল প্লামে ১০ জনসহ মোট ৯ টি হোটেলে তাদের ভাগ করে কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়।