হেফাজত তাণ্ডবে দোষীদের গ্রেপ্তার চলছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

বাংলাদেশ মেইল ::

স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীতে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমনকে ইস্যু করে হেফাজতে ইসলাম বায়তুল মোকাররম থেকে হাটহাজারী, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় যারা তাণ্ডব চালিয়ে ভাংচুর করেছে তাদের দ্রুত গেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

রবিবার (৪ এপ্রিল) জাতীয় সংসদের সমাপ্তি অধিবেশনে এ তথ্য জানান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আছাদুজ্জাসান খান কামাল। এ সময় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুধী সভাপতিত্ব করছিলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ২২-২৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ ঘটনায় ১৭ জনের মৃত্যু ঘটে। আসলে এসব ঘটনা পূর্ব পরিকল্পিত।

তিনি আরও বলেন, কোন প্ররোচনা ছাড়াই হেফাজতীরা ২৬ মার্চ মোদি আসাতে ইস্যু করে বায়তুল মোকাররমে নামাজের পরে বৃষ্টির মতো ইট পাটকেল ছোড়ে। এতে পুলিশসহ আ. লীগের অনেকেই আহত হন। এরপর তারা হাটহাজারিতে পুলিশের ওপর চড়াও হন, সরকারি সম্পত্তি ভাংচুর করে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় স্টেশন বঙ্গবন্ধুর মুর‌্যাল ছাড়াও সরকারি-বেসরকারি ভবন, সাংস্কৃতিক ভবনে আগুন দেয়। কিন্তু আমাদের পুলিশ ফুটেজ ধরে ধরে তাদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছে। কাউকে ছাড় দেওয়া যাবে না।

তিনি বলেন, এমনকি গতকাল (শনিবার) সোনারগাঁওয়ে এক হোটেলে হেফাজতের মামুনুর রশীদ অন্যের এক নারীকে নিয়ে অবস্থান করলে সেখানকার স্থানীয় জনগণ তাকে আটক করে। যদিও পরে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়। এ বিষয়ে আমরা তদন্ত করছি।