গ্রেফতারের খবর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে
মামুনুল হক কি পুলিশের হেফাজতে?

বাংলাদেশ মেইল ::

রাজধানীর মোহাম্মদপুর মাদ্রাসা থেকে হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হককে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে খবর ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।  বুধবার (৭ এপ্রিল) রাত ১ টার পর ডিবি পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেছে বলে সামাজিকমাধ্যমে খবর ছড়িয়ে পড়ে।

পুলিশের পক্ষ থেকে বিষয়টি এখনও নিশ্চিত করা হয় নি।  কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি তিলোত্তমা সিকদার তার ফেসবুক টাইমলাইনে মামুনুল হককে গ্রেফতারের বিষয়টি জানানোর কারনে বিষয়টিকে গুজব বলে উড়িয়ে দেয়াও যাচ্ছে না ।

মধ্যরাতে মোহাম্মদপুর রাহমানিয়া মাদ্রাসায় গণমাধ্যম কর্মিদের পাশাপাশি  পুলিশের ব্যাপক উপস্থিতি স্থানীয়রা নিশ্চিত করেছেন। তবে পুলিশের এক উর্ধতন কর্মকর্তা জানান, মামুনুল হকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। সেই হিসেবে এমন খবর চাউর হয়েছে। কিন্তু এমন পর্যন্ত তাকে গ্রেফতার করা হয়নি।

হেফাজতের নেতা মুফতি রেজওয়ান ফারুকী তার ফেসবুক স্টাটাসে জানান, মাওলানা মামুনুল হককে গ্রেফতার করা হয়নি। তবে মাওলানা  মামুনুল হককে যে কোন মুহুর্তে   গ্রেফতার করা হতে পারে।
গত শনিবার (৩ এপ্রিল) নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে রয়াল রিসোর্টে মামুনুল হককে এক নারীসহ অবরুদ্ধ করে রাখেন স্থানীরা। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করলে নারীকাণ্ড নিয়ে শুরু হয় আলোচনা-সমালোচনা।

এরপরই গত দুই দিনে ঢাকায় ও নারায়ণগঞ্জে তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলা হয়েছে। এরইমধ্যে সরকারের একাধিক মন্ত্রী হেফাজতের তাণ্ডবের বিষয়ে কঠোর অবস্থানে যাওয়ার কথা বলেছেন। পাশাপাশি সাদা পোশাকে একাধিক গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরাও তার গতিবিধি নজরদারি করছেন।

বেশকিছু সুত্র নিশ্চিত করেছেন যে রিসোর্টের ঘটনার পর থেকে তিনি নিজের বাসায় যাননি। মাদ্রাসায়ও তিনি অবস্থান করছেন না।