খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল আছে

ফাইল ছবি

বাংলাদেশ মেইল ::

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার অবস্থা স্থিতিশীল আছে বলে জানিয়েছেন তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ডা. জাহিদ হোসেন। তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত তার (খালেদার) শরীরে করোনার কোনো উপসর্গ নেই। স্বাভাবিকভাবেই তিনি শ্বাস-প্রশ্বাস নিচ্ছেন। শুধু তিনি নন, করোনা আক্রান্ত তার অন্য স্টাফদের অবস্থাও ভালো।

সোমবার (১২ এপ্রিল) সকাল ৯টার দিকে ডা. জাহিদ বলেন, ২৪ ঘণ্টাই ম্যাডামের শারীরিক অবস্থার খোঁজ রাখা হচ্ছে। এখন পর্যন্ত তিনি সুস্থ আছেন। আপনারা তার জন্য দোয়া করবেন। তিনি দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, গুলশানে খালেদা জিয়ার বাসভবন ফিরোজায় দ্বিতীয় তলার একটি রুমে আছেন তিনি। রাতে লন্ডনে অবস্থানরত ছেলে তারেক রহমান ও প্রয়াত আরাফাত রহমান কোকোর পরিবারের সদস্যরা অনলাইনে ভিডিওকলে তার সার্বিক শারীরিক অবস্থার খোঁজ নেন। এছাড়া ফিরোজায় অবস্থানরত খালেদার ব্যক্তিগত স্টাফদের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছেন তার ভাই শামীম ইস্কান্দর ও ছোট ভাইয়ের স্ত্রী।

ডাক্তারদের একটি সূত্র জানায়, এখন প্রতিদিন নিয়ম করে খালেদা জিয়াকে দেখতে যাবেন তার ব্যক্তিগত চিকিৎসক ডা. এফ এম সিদ্দিকী ও ড. মামুন। আর লন্ডন থেকে তাদের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছেন বড় ছেলের স্ত্রী ডা. জোবাইদা রহমান। এছাড়া খালেদা জিয়ার অন্যান্য ডাক্তার এবং ড্যাবের চিকিৎসকরাও তার খোঁজ রাখছেন।

বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান বলেন, ডাক্তাররা জানিয়েছে ম্যাডামের শারীরিক অবস্থা আগের মতোই আছে। তার জ্বর, গলা ব্যথা, কাশি, শ্বাসকষ্ট কোনো উপসর্গই নেই।