ফ্ল্যাটের দরজা ভেঙ্গে ড. তারেক শামসুর রহমানের মৃতদেহ উদ্ধার

বাংলাদেশ মেইল ::

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের শিক্ষক ও রাজনৈতিক বিশ্লেষক অধ্যাপক ড. তারেক শামসুর রেহমানের বাসা থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার উত্তরার অ্যাপার্টমেন্ট প্রজেক্টে নিজের ফ্ল্যাটের দরজা ভেঙে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

রাজউকের উত্তরা অ্যাপার্টমেন্ট প্রোজেক্টের প্রকল্প পরিচালক মো. মোজাফফর আহমেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, সকালে তারেক শামসুর রেহমানের কাজের বুয়া বাসায় যান। বাইরে থেকে কলিং বেল দিলেও তিনি দরজা খোলেননি। পরে বুয়া নিচে সিকিউরিটি গার্ডকে বিষয়টি জানান। এরপর আশপাশের সবাই ফ্লাটে গিয়ে তাকে ডাকাডাকি করেন। কিন্তু তার সাড়াশব্দ পাওয়া যায়নি। পরবর্তীতে বেলা ১১টার দিকে তুরাগ থানা পুলিশকে জানানো হয়। পুলিশ ফ্লাটের দরজা ভেঙে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়

মোজাফফর আহমেদ আরও জানান, তারেক শামসুর রেহমানের মরদেহটি বাথরুমের সামনে পরে ছিল। তিনি সেখানে বমি করেছিলেন। পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়েছে।

রাজউক উত্তরা অ্যাপার্টমেন্ট প্রোজেক্টের প্রকল্প পরিচালক আরও জানান, তিনদিন আগেও আমরা জুম মিটিংয়ে প্রজেক্টের বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়েছিল। জানা গেছে, গতকাল সন্ধ্যায় নিজ বাসায় ইফতার করেন তিনি। তার পরিবারের সবাই দেশের বাইরে। উত্তরা ১৪ নম্বর সেক্টরে থাকেন তিনি।

বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সাবেক সদস্য তারেক শামসুর রেহমান জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের অধ্যাপক ও বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান ছিলেন।

আন্তর্জাতিক রাজনীতি, আন্তঃরাষ্ট্রীয় সম্পর্ক ও বৈদেশিক নীতি এবং তুলনামূলক রাজনীতি নিয়ে তার একাধিক গ্রন্থ রয়েছে। আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ে পিএইচডি ডিগ্রির অধিকারী অধ্যাপক রেহমান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অনার্স ও মাস্টার্স ডিগ্রি সম্পন্ন করেন।

অধ্যাপনার পাশাপাশি ড. রেহমান নিয়মিত কলাম লিখতেন।