স্বাস্থ্যবিধি কার্যকরে জেলা প্রশাসনের দিনব্যাপি অভিযান

বাংলাদেশ মেইলঃঃ

 

নগরীতে লগডাউনের টানা ৪র্থ দিনে স্বাস্থ্যবিধি শতভাগ কার্যকরে জেলা প্রশাসনের ৮ টি টিম দিনব্যাপী মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেছে।

গতকাল শনিবার নগগীর পাহাড়তলী হালিশহর ও আকবরশাহ পতেঙ্গা ইপিজেড ও বন্দর,পাঁচলাইশ বাকলিয়া চকবাজার, কোতোয়ালী সদরঘাট,ডবলমুরিং,খুলসী বায়েজিত চান্দগাও,এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সোহেল রানা,নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এহসান মুরাদ,নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ ইনামুল হাছান,নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনাব মাসুমা জান্নাত,রেজওয়ানা আফরিন, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ রাজিব হোসেন করেন,নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মিজানুর রহমান,ও আব্দুল্লাহ আল মামুন অভিযান পরিচালনা করেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সোহেল রানা নগরীর পাহাড়তলী হালিশহর ও আকবরশাহ এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ৭ মামলায় ১৮০০ টাকা জরিমানা আদায় করেন।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এহসান মুরাদ পতেঙ্গা ইপিজেড ও বন্দর এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা কালে সচেতনতার পাশাপাশি একটি বিপণী বিতান বন্ধ করে দেন এবং সাধারণ মানুষের মাঝে মাস্ক বিতরণ করেন।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনাব মুহাম্মদ ইনামুল হাছান পাহাড়তলী হালিশহর আকবরশাহ এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করার সময় ১ মামলায় ১হাজার টাকা জরিমানা করেন।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনাব মাসুমা জান্নাত নগরীর পাঁচলাইশ বাকলিয়া ও চকবাজার এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ১০ মামলায় ১৮০০ টাকা জরিমানা করেন।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ রাজিব হোসেন নগরীর পতেঙ্গা ইপিজেড ও বন্দর এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করার সময় ৬ মামলায় ২হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রেজওয়ানা আফরিন শহরের কোতোয়ালি সদরঘাট ও ডবলমুরিং এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করার সময় সাধারণ মানুষ কে স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতে দেখেন এবং জেলা প্রশাসন, চট্টগ্রামের পক্ষ হতে মাস্ক বিতরণ করেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জনাব ফাহমিদা আফরোজ নগরীর খুলশী বায়েজিদ ও চান্দগাও এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ২ মামলায় ১৫০০ টাকা জরিমানা আদায় করেন এবং সচেতনতার পাশাপাশি মাস্ক বিতরণ করেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সুরাইয়া ইয়াসমিন নগরীর কোতোয়ালি সদরঘাট ও ডবলমুরিং এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ৪ মামলায় ৮০০ টাকা জরিমানা আদায় করেন। এ

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মিজানুর রহমান নগরীর পাঁচলাইশ বাকলিয়া ও চকবাজার এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করার সময় ৪ মামলায় ২১০০ টাকা জরিমানা আদায় করেন, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল মামুন নগরীর খুলশী বায়েজিদ ও চান্দগাও এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ৭ মামলায় ২৩০০ টাকা অর্থদণ্ড আদায় করেন।