ফেসবুকে নুশরাত জাহান
আনভীরের বিরুদ্ধে করা মামলাকে ভিন্ন খাতে প্রবাহ করতে শারুনের বিরুদ্ধে মামলা

বাংলাদেশ মেইল ::

মোশারাত জাহান মুনিয়ার আত্নহত্যাকে কেন্দ্র করে বড় ভাই আশিকুর রহমানের দ্বিতীয় মামলা দায়েরকে বিচার প্রক্রিয়া ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার চক্রান্ত বলে অবহিত করেছেন মুনিয়ার বড় বোন নুসরাত জাহান।

রাজধানীর গুলশানের একটি ফ্ল্যাট থেকে কলেজ শিক্ষার্থী মোসারাত জাহান মুনিয়ার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধারের ঘটনায় রবিবার  হুইপপুত্র শারুন চৌধুরীর বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়েরের আবেদন করেন  মুনিয়ার ভাই আশিকুর রহমান সবুজ।

রোববার ঢাকা মহানগর হাকিম মোর্শেদ আল মামুন ভুঁইয়ার আদালতে এ মামলার আবেদন করেন মুনিয়ার ভাই আশিকুর রহমান।

ভাই আশিকুর রহমানের মামলার বিষয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেসবুকে মুনিয়ার বড় বোন লিখেছেন,

প্রিয় দেশবাসী,

আমার সন্দেহ ও ধারণা মুনিয়ার উদ্ধারকৃত ঝুলন্ত লাশের ঘটনায় অভিযুক্ত বসুন্ধরা গ্রুপের এমডির বিরুদ্ধে আমার করা মামলাকে হালকা করা ও ভিন্ন খাতে প্রবাহের জন্য অর্থের লালসায় বসুন্ধরা গ্রুপের সাজানো গুটির অংশ হিসেবে মুনিয়ার উদ্ধারকৃত ঝুলন্ত লাশের ঘটনায় চট্টগ্রাম-১২ আসনের সাংসদ ও হুইপ পুত্র শারুনকে অভিযুক্ত করে আমার ভাই সবুজ ঢাকার আদালতে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন বলে বিভিন্ন মিডিয়ার মাধ্যমে জানতে পেরেছি। আমাদের মা বাবা মৃত্যুর পর মুনিয়ার অভিভাবক বলতে আমি এবং আমার স্বামী। পারিবারিক বিভিন্ন জটিলতায় আমাদের ভাই সবুজের সাথে আমাদের দীর্ঘদিন ধরে যোগাযোগ বিছিন্ন রয়েছে। আমাদের তিন ভাই-বোন সকলের নামে পিতা মাতার রেখে যাওয়া সম্পত্তি পুরোটা নিজে দখল করার জন্য আমাদের ভাই সবুজ আমাদের দুই বোনকে দীর্ঘদিন ধরে হুমকি-ধামকি ও মানসিক নির্যাতন করতো। এবং কি সম্পত্তির জন্য আমার এবং মুনিয়ার বিরুদ্ধে কুমিল্লার আদালতে মামলাও দায়ের করেছে। যে মামলার বিচার এখনো চলমান। আমাদের ভাই সবুজ কর্তৃক হুইপ পুত্র শারুনের বিরুদ্ধে করা মামলা ব্যাপারে আমার এবং আমার স্বামীর কোন সংশ্লিষ্টতা নেই। মুনিয়ার অপমৃত্যুর বিচার দাবিতে আমার ও আমার স্বামীর অনুমতি ব্যতীত আমাদের ভাই সবুজ কর্তৃক প্রদত্ত মুনিয়ার অপমৃত্যুর ঘটনায় কোন অসংলগ্ন বক্তব্য গ্রহণ না করার জন্য গণমাধ্যম ও দেশবাসীর প্রতি অনুরোধ রইলো। আমার দায়ের করা মামলায় অভিযুক্ত সায়েম সোবহান আনভীরকে দ্রুত গ্রেফতার করা হোক এবং পুলিশ যদি তদন্তের মাধ্যমে এই মামলায় আনবীর ছাড়াও অন্য কারো বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্টতা পায়, সে যেই হোক তাকেও দ্রুত গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদের দাবি জানাচ্ছি।

– নুসরাত জাহান তানিয়া (প্রয়াত মুনিয়ার বড় বোন)

রাজধানীর গুলশানের একটি ফ্ল্যাট থেকে কলেজ শিক্ষার্থী মোসারাত জাহান মুনিয়ার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধারের পর থেকে বসুন্ধরা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সায়েম সোবহান কার্যত পলাতক রয়েছেন। পরিবারের সদস্যরাও ভাড়া করা বিমানে দেশ ত্যাগ করেছেন।