জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান,২৪ মামলায় ৩৭৪০০ টাকা অর্থদণ্ড

বাংলাদেশ মেইল ::

চট্টগ্রাম নগরীর বিভিন্ন স্থানে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান চালিয়ে  ২৪ মামলায় ৩৭৪০০ টাকা অর্থদণ্ড দিয়েছে।

শনিবার (২২মে)   সন্ধ্যা পর্যন্ত জেলা প্রশাসন চট্টগ্রামের ছয়জন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট মহানগরীর বিভিন্ন স্থানে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন।  সরকার ঘোষিত বিধিনিষেধ সফলভাবে বাস্তবায়ন করে কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ রোধ করার লক্ষ্যে। এ সময় স্বাস্থ্য বিধি সঠিকভাবে প্রতিপালন না করায় এবং সরকার ঘোষিত বিধিনিষেধ মেনে না চলায় বিভিন্ন দোকান , রেস্টুরেন্ট এবং শপিং মলে অভিযান পরিচালনা করে অর্থদণ্ড প্রদান করার পাশাপাশি সাধারণ মানুষকে স্বাস্থ্য বিধি প্রতিপালনে সচেতন করা হয়। এছাড়াও জেলা প্রশাসন, চট্টগ্রামের পক্ষ হইতে মাস্ক বিতরণ করা হয় ।

নির্বাহী  ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ উমর ফারুক মহানগরীর কোতোয়ালি সদরঘাট ও ডবলমুরিং এলাকায় অভিযান পরিচালনা করার সময় ৪ টি মামলা দায়ের করে ১৮০০ টাকা অর্থদণ্ড আদায় করেন ।

নির্বাহী  ম্যাজিস্ট্রেট  রেজওয়ানা আফরিন নগরীর চান্দগাও ও পাচলাইশ এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করার সময় ৩ টি মামলা দায়ের করে মোট ১৬০০ টাকা অর্থদণ্ড আদায় করেন।

নির্বাহী  ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল্লাহ আল মামুন খুলশী, বায়েজিদ, সদরঘাট ও কাজির দেউড়ী এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ৯ টি মামলা দায়ের করে ১০৩০০ টাকা অর্থদণ্ড আদায় করেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট  প্লাবন কুমার বিশ্বাস মহানগরীর হালিশহর, পাহাড়তলী ও আকবর শাহ এলাকায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করার সময় ৮ টি মামলা দায়ের করে ২৩৭০০ টাকা অর্থদণ্ড আদায় করেন।

এছাড়াও নির্বাহী  ম্যাজিস্ট্রেট  সুরাইয়া ইয়াসমিন নগরীর চকবাজার ও বাকলিয়া এলাকায়, এবং নির্বাহী  ম্যাজিস্ট্রেট  সোনিয়া হক নগরীর ইপিজেড ও বন্দর এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেন স্বাস্থ্য বিধি প্রতিপালন নিশ্চিত করতে ।

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী জেলা প্রশাসন চট্টগ্রামের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে।