একসেপ্ট ইসরায়েল’ শব্দ তুলে নেয়ায়
বাংলাদেশের নতুন পাসপোর্ট নিয়ে উচ্ছ্বসিত ইসরায়েল

বাংলাদেশ মেইল ::

ইসরায়েলকে মেনে নেবার মতো কোন আনুষ্ঠানিক সিদ্ধান্ত না হলেও বাংলাদেশের নতুন পাসপোর্ট ইস্যু নিয়ে উচ্ছ্বসিত ইসরায়েল।

স্বাধীনতা পরবর্তী ৫০ বছরে বাংলাদেশের পাসপোর্টে লেখা থাকত ‘দিস পাসপোর্ট ইজ ভ্যালিড ফর অল কান্ট্রিজ অব দ্য ওয়ার্ল্ড একসেপ্ট ইসরায়েল’। সাম্প্রতিক সময়ে নতুন ই-পাসপোর্টে সংশোধন করে লেখা হচ্ছে ‘দিস পাসপোর্ট ইজ ভ্যালিড ফর অল কান্ট্রিজ অব দ্য ওয়ার্ল্ড’।

বাংলাদেশের পাসপোর্ট থেকে ‘একসেপ্ট ইসরায়েল’ (ইসরায়েল ছাড়া) শব্দ তুলে দেয়ার ঘটনায় ঢাকার প্রতি কৃতজ্ঞতা ও সন্তুষ্টির কথা জানিয়েছে তেল আবিব। যদিও দুই দেশের কূটনৈতিক সম্পর্কে ন্যূনতম অগ্রগতি হয়নি।

এক টুইটবার্তায় রোববার ইসরায়েলের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের উপমহাপরিচালক গিলাড কোহেন এ সন্তোষ প্রকাশ করেন।

বাংলাদেশের পাসপোর্ট থেকে ‘একসেপ্ট ইসরায়েল’ শব্দ তুলে দেয়াকে ‘অনেকটা বড় খবর’ বলে উল্লেখ করেন তিনি।

যদিও এনিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ইসরায়েলের ব্যাপারে আমাদের অবস্থান একই আছে। বাংলাদেশ এখনো ইসরায়েলকে স্বীকৃতি দেয়নি। একই সঙ্গে আমরা ফিলিস্তিনের প্রতি সহানুভূতিশীল। তবে পাসপোর্টের আন্তর্জাতিক মান বজায় রাখতে ‘একসেপ্ট ইসরায়েল’ শব্দবন্ধ তুলে নেওয়া হয়েছে।

একই ব্যাপারে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, বিষয়টি আমি ভালো জানি না। কেন ‘একসেপ্ট ইসরায়েল’ তুলে নেওয়া হলো, এর উত্তর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ভালো বলতে পারবে। সরকার এ ব্যাপারে কোনো সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলেও আমার জানা নেই।