চমেকে করোনা ছাড়া অন্য রোগীর ভর্তি ও অস্ত্রোপচার বন্ধ

    মেডিকেল শিক্ষার্থীদের

    বাংলাদেশ মেইল ::

    চট্টগ্রামে করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণের ধারা অব্যাহত রয়েছে । প্রতিদিনই নতুন করে ভাঙছে মৃত্যু এবং আক্রান্তের রেকর্ড। পরিস্থিতি মোকাবিলায় বড়ো পরিসরে প্রস্তুতি নিচ্ছে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতাল। আপাতত খুব জরুরি না হলে হাসপাতালে সাধারণ রোগী ভর্তি ও অস্ত্রোপচার বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে।

    সোমবার (১২ জুলাই)  এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের উপ-পরিচালক আফতাবুল ইসলাম।

    তিনি বলেন, ‘জেলায় প্রতিদিনই করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে সরকারিভাবে আসন রয়েছে ১০০টি। হাসপাতালের নিজস্ব উদ্যোগে কিছু আসন বাড়ানো হয়েছে। বর্তমানে রোগী ভর্তি আছেন ২৪৫ জন। নতুন করে করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসা নিশ্চিত করতে আরও আসন বাড়ানো হচ্ছে। হাসপাতালে একসঙ্গে ৩০০ করোনা রোগীকে চিকিৎসা প্রদানের সক্ষমতা রয়েছে।’

    তিনি আরও বলেন, ‘খুব জরুরি ছাড়া হাসপাতালে সাধারণ রোগী ভর্তি ও অস্ত্রোপচার বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। পাশাপাশি সাধারণ ওয়ার্ডে ভর্তি থাকা রোগীদের সম্ভব হলে ছাড়পত্র দিয়ে বাসায় চিকিৎসা প্রদান করতে বলা হয়েছে। হাসপাতালের সাধারণ ওয়ার্ডে রোগীর পাশাপাশি ডাক্তার ও নার্সরা করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। তাই সংশ্লিষ্ট সবাইকে মাস্ক পরতে বলা হয়েছে।’

    এদিকে, আজ (সোমবার) জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদনে দেখা গেছে, চট্টগ্রামে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন সর্বোচ্চ ৮২১ জন। এটিই এখন পর্যন্ত জেলায় একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্ত। একই সময়ে মারা গেছেন আরও নয়জন।

    চমেকে অস্ত্রোপচার /বিএম