এসএসসি, এইচএসসি নিয়ে সিদ্ধান্ত আসছে কাল

বাংলাদেশ মেইল::

করোনাভাইরাস মহামারি পরিস্থিতিতে পাবলিক পরীক্ষার বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানাতে কাল বৃহস্পতিবার (১৫ জুলাই) সংবাদ সম্মেলন ডেকেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

বুধবার (১৪ জুলাই) শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র তথ্য কর্মকর্তা এম আবুল খায়ের স্বাক্ষরিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, এসএসসি এবং এইচএসসি পরীক্ষা ২০২১ সংক্রান্ত বিষয়ে ১৫ জুলাই সকাল ১১ টায় ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলন করবেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

উল্লেখ্য এর আগে গত ১৫ জুন শিক্ষামন্ত্রী বলেছিলেন, ‘আমারা দেখেছি অ্যাসাইনমেন্টের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা ভালো করছে। এসএসসির জন্য ৬০ দিন এবং এইচএসসির জন্য ৮৪ দিনের অ্যাসাইনমেন্ট আমরা দিচ্ছি। আমরা চেষ্টা করে যাব। আরও কিছুদিন হয়ত দেখতে হবে। যদি দেখি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান একবারেই খোলা সম্ভব হচ্ছে না তখন আমরা বিকল্প অনেক কিছুই চিন্তা করে রেখেছি। কী কী সিনারিও হতে পারে তারও চিন্তা করছি। সবরকমের সিনারিও চিন্তা করে কী কী সম্ভাব্য বিকল্প থাকতে পারে সেটা নিয়ে কাজ করছি। যদি পরীক্ষা নেওয়া না যায় তাহলে বিকল্প কীভাবে মূল্যায়ন হতে পারে, সেগুলো আমরা ভাবছি।’

এদিকে গণমাধ্যম কে  দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ঢাকা বোর্ড চেয়ারম্যান অধ্যাপক নেহাল আহমেদ জানিয়েছিলেন, পিছিয়ে দিয়ে হলেও তাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা থাকবে পরীক্ষা নেওয়ার। কিন্তু তবুও যদি তা সম্ভব না হয়, তবে বিকল্প কী ব্যবস্থা হতে পারে এ নিয়ে বিশিষ্ট শিক্ষাবিদরা কাজ করছেন। শিগগিরই শিক্ষামন্ত্রী এ বিষয়ে সকলের সামনে বিস্তারিত তুলে ধরবেন।

তিনি আরও জানিয়েছিলেন, আমাদের পরিকল্পনা ছিল আমরা ক্লাস নেব। তারপর পরীক্ষা নেব। এখন যে পরিস্থিতি দেখা যাচ্ছে, তাতে ক্লাস নেওয়া কতটুকু সম্ভব হবে এ নিয়ে আমাদের বিকল্প চিন্তা ভাবনা চলছে। তিনি বলেন, সংক্রমণ পরিস্থিতিতে পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব না হলে বিকল্প মূল্যায়নের চিন্তাভাবনা রয়েছে। তবে এক্ষেত্রে শিক্ষার্থীদের দেওয়া অ্যাসাইনমেন্টকে গুরুত্ব দেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের মার্চে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হওয়ার পর কোনো ধরনের পরীক্ষা নেওয়া যায়নি। ওই বছর শিক্ষার্থীদের আগের ফলাফলের মূল্যায়ন করে অটোপাসের মাধ্যমে পরের ক্লাসে উত্তীর্ণ করার সুযোগ করে দেওয়া হয়েছিল।