গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যুর শীর্ষে ইন্দোনেশিয়া

করোনায় মৃত্যুর শীর্ষে

বাংলাদেশ মেইল ::

গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে করোনায় ৬ হাজার ৩০০ এর বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে। একই সময়ে ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ৩ লাখ ৭০ হাজার ৫৪৬ জন। এতে বিশ্বব্যাপী করোনায় শনাক্ত ১৮ কোটি ৭৬ লাখ ১৭ হাজার ৬৩৯ জনে এবং মৃতের সংখ্যা ৪০ লাখ ৪৮ হাজার ৯১৯ জনে দাঁড়িয়েছে। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে ভারতে। তবে ইন্দোনেশিয়া দৈনিক মৃত্যুতে শীর্ষে উঠে এসেছে।

ইন্দোনেশিয়ায় করোনায় একদিনে ১ হাজার ৭ জন মারা গেছেন। একই সময়ে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৩৬ হাজার ১৯৭ জনের। দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ২৫ লাখ ২৭ হাজার ২০৩ এবং মৃত্যু হয়েছে ৬৬ হাজার ৪৬৪ জনের।

করোনাভাইরাসে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশ যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৩ কোটি ৪৭ লাখ ৩২ হাজার ৭৫৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে ৬ লাখ ২২ হাজার ৮৪৫ জনের।

ব্রাজিল করোনায় আক্রান্তের দিক থেকে তৃতীয় ও মৃত্যুর সংখ্যায় তালিকার দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৫৯৭ জন এবং নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ২০ হাজার ৯৩৭ জন। দেশটিতে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা এক কোটি ৯০ লাখ ৮৯ হাজার ৯৪০ জন এবং মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৩৩ হাজার ৫৪৬ জনের।

করোনায় আক্রান্তের তালিকায় ভারতের অবস্থান দ্বিতীয়। তবে মৃতের সংখ্যার তালিকায় দেশটি তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে। করোনায় গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে ৭২০ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং নতুন শনাক্ত হয়েছেন ৩৭ হাজার ৬৭৬ জন। দেশটিতে শনাক্ত ৩ কোটি ৮ লাখ ৭৩ হাজার ৯০৭ জন এবং মারা গেছেন ৪ লাখ ৮ হাজার ৭৯২ জন।

এখন পর্যন্ত ফ্রান্সে ৫৮ লাখ ১২ হাজার ৬৩৯ জন, রাশিয়ায় ৫৭ লাখ ৮৩ হাজার ৩৩৩ জন, যুক্তরাজ্যে ৫১ লাখ ২১ হাজার ২৪৫ জন, ইতালিতে ৪২ লাখ ৭১ হাজার ২৭৬ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

এছাড়া তুরস্কে ৫৪ লাখ ৮১ হাজার ৫৫৫ জন, স্পেনে ৩৯ লাখ ৩৭ হাজার ১৯২ জন, জার্মানিতে ৩৭ লাখ ৪৩ হাজার ৭১৩ জন এবং মেক্সিকোতে ২৫ লাখ ৮৬ হাজার ৭২১ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

অন্যদিকে করোনায় এখন পর্যন্ত ফ্রান্সে এক লাখ ১১ হাজার ৩২৫ জন, রাশিয়ায় এক লাখ ৪৩ হাজার ২ জন, যুক্তরাজ্যে এক লাখ ২৮ হাজার ৪২৫ জন, ইতালিতে এক লাখ ২৭ হাজার ৭৭৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া, তুরস্কে ৫০ হাজার ২২৯ জন, স্পেনে ৮১ হাজার ৩ জন, জার্মানিতে ৯১ হাজার ৭৬৭ জন এবং মেক্সিকোতে ২ লাখ ৩৪ হাজার ৯০৭ জন মারা গেছেন ।