রাজ কুন্দ্রার পর্নোগ্রাফি কাণ্ড, বলিউড নিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য শ্রুতির

পর্নোগ্রাফি কাণ্ড

বাংলাদেশ মেইল ::

অভিনেত্রী শিল্পা শেঠির স্বামী রাজ কুন্দ্রার পর্নোগ্রাফি কাণ্ড নিয় গোটা বি-টাউনে হইচই পড়ে গেছে। এবার সে আগুনে ঘি ঢাললেন অভিনেত্রী শ্রুতি গেরা। রাজ কুন্দ্রার অ্যাপের ভিডিওতে অভিনয়ের জন্য প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল শ্রুতিকেও। যদিও তাকে বলা হয়েছিল, ওয়েব সিরিজের জন্য ডাকা হচ্ছে। কিন্তু মুম্বাইয়ের বিজ্ঞাপনের জগতের চেনামুখ শ্রুতি সেই প্রস্তাবে রাজি হননি।

পর্নোগ্রাফি কাণ্ড প্রকাশ ও  রাজের গ্রেপ্তারের পর সেই অভিজ্ঞতা প্রকাশ করলেন শ্রুতি। এই মুহূর্তে তার একটি কথাই মনে হচ্ছে, ‘ওদের থেকে নিজেকে নিরাপদ রাখতে পেরেছি, এই আমার সৌভাগ্য।’

একাধিক কাস্টিং নির্দেশকদের কাছ থেকে ফোন এসেছিল শ্রুতির কাছে। যদিও তাদের নাম মনে নেই অভিনেত্রীর। তিনি বলেন, ‘কোনো কাস্টিং এক ডিরেক্টর আমাকে ফোন করেছিলেন, নামটা মনে নেই। আমায় বলা হয়েছিল, রাজ কুন্দ্রার সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়া হবে, আরও একজন বলেন, রাজ কুন্দ্রা ওয়েব দুনিয়ায় পা রাখছেন। আমি তখনই না বলে দিয়েছিলাম। তবে ভাগ্যবান যে ওদের থেকে নিজেকে সুরক্ষিত রাখতে পেরেছি। আমরা সবাই জানতাম রাজ কুন্দ্রা একটা বড় নাম, কিন্তু দেখা গেল উনি পর্নো বানাতেন।’
বলিউডে কম বয়সী ও পরিশ্রমী অভিনেতা-অভিনেত্রীদের এ ধরনের ঘটনার সম্মুখীন হতে হয় বলে দাবি শ্রুতির। তিনি বলেন, ‘জোর করে নেশা করিয়ে তাদের অজান্তেই আপত্তিকর ভিডিও তুলে তারপর এই ধরনের পর্নো বা যৌন উদ্দীপক ছবিতে কাজ করানোর জন্য ব্ল্যাকমেল করা হয়। বলিউডে এটা খুবই সাধারণ ঘটনা। যত্রতত্র দেখা যায় এটা।’
খ্যাতনামীদের অডিশন নেওয়া হয় না বলে জানালেন শ্রুতি। কোন ছবিতে মুখ্য চরিত্রে কে বা কারা অভিনয় করবেন, সেটা আগে থেকেই স্থির করা থাকে। শ্রুতির কথায় জানা গেল, সমস্ত অসুবিধার সম্মুখীন হতে হয় কিন্তু ছোট শিল্পীদের। কেবল নারী নয়, পুরুষদেরও এমন ভিডিওর জন্য জোর করা হয়। তাদের এমন পরিস্থিতির মুখে ফেলা হয়, যেখানে‌ দাঁড়িয়ে আর কোনো পথ খোলা থাকে না। তাই শ্রুতির অনুরোধ, অভিনেতা-অভিনেত্রীদের এ সবের জন্য দোষ দেওয়া উচিত নয়।
পর্নোগ্রাফি ছবি বানিয়ে তা বিভিন্ন অ্যাপে প্রকাশ করার অভিযোগে গত সোমবার (১৯ জুলাই) রাজ কুন্দ্রাকে গ্রেপ্তার করেছে মুম্বাই পুলিশের ক্রাইম ব্রাঞ্চ। এ ঘটনায় অন্যতম মূল অভিযুক্ত হিসেবে রাজকে উল্লেখ করা হয়। এই মামলায় এখনও পর্যন্ত ১১ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।
বিএম/ পর্নোগ্রাফি কাণ্ড