শনাক্ত ৯৫৫, মৃত্যু ১০
চট্টগ্রামে করোনা ভাঙ্গলো শনাক্তের সব রেকর্ড

বাংলাদেশ মেইল ::

প্রতিদিনই চট্টগ্রামে করোনা শনাক্তের নতুন রেকর্ড তৈরি হচ্ছে।  শনাক্তের উর্ধমুখি ধারায় লম্বা হচ্ছে করোনায় মৃত্যুর তালিকাও।

গত ২৪ ঘণ্টায় (১২ জুলাই) সাম্প্রতিক সময়ের সর্বোচ্চ ৯৫৫ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে চট্টগ্রামে । একই সময়ে মৃত্যুর তালিকায় যুক্ত হয়েছে নতুন ১০ জনের নাম। লকডাউনের বিধিনিষেধের মাঝেও করোনা শনাক্তে নতুন রেকর্ড এটি।

সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে সোমবার (১২ জুলাই) রাতে প্রকাশিত প্রতিবেদনে তথ্য  অনুযায়ী মোট ২ হাজার ৬৪৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ৯৫৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে । পরীক্ষা বিবেচনায়  শনাক্তের হার ৩৬ দশমিক ০৫ শতাংশ।মৃত ১০ জনের মধ্যে ৪ জন নগরের ও ৬ জন উপজেলার।

গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ৯৫৫ জনসহ চট্টগ্রামে  মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৬৬ হাজার৭৮৪ জন। নতুন ১০ জনসহ এখন পর্যন্ত  মোট মৃতের সংখ্যা ৭৯০ জন।

এদিন সরকারি বেসরকারি ১১ টি ল্যাবে সর্বমোট ২ হাজার ৬৪৯ জনের নমুনা পরীক্ষায় ৯৫৫ জনের শরীরে করোনার সংক্রমণ পাওয়া গেছে। যাদের ৬৩৬ জন নগরের ও ৩১৯ জন উপজেলার বাসিন্দা।

সোমবার ১১টি ল্যাবে ২ হাজার ৬৪৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ১২৩ জনের মধ্যে ৭৯ জন, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজেসে (বিআইটিআইডি) ৬৯৮ জনের মধ্যে ২১০ জন, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) ল্যাবে ৪০০ জনের মধ্যে ১৩০ জন, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিম্যাল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় (সিভাসু) ল্যাবে ২২৯ জনের মধ্যে ৮২ জন, ৬৫৪ জনের এন্টিজেন টেস্টে ২৩৬ জন, ইমপেরিয়াল হাসপাতালে ১৫১ জনের মধ্যে ৬৮ জন, শেভরণে ১৫৭ জনের মধ্যে ৪৪ জন, চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল ল্যাবে ৫২ জনের মধ্যে ৩১ জন, জেনারেল হাসপাতালের রিজিওনাল টিবি রেফারেল ল্যাবরেটরিতে (আরটিআরএল) ৪২ জনের মধ্যে ২৫ জন এবং ইপিক হেলথ কেয়ার ল্যাবে ১০২ জনের মধ্যে ৬০ জনের করোনা পজেটিভ ফল পাওয়া যায়। এছাড়া কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ হাপসপাতালে একজনের নমুনা পরীক্ষা করা হলেও তা নেগেটিভ এসেছে।

সোমবার  লোহাগাড়ায় ৮ জন, সাতকানিয়ায় ৯ জন, বাঁশখালীতে ৯ জন, আনোয়ারায় ১৫ জন, চন্দনাইশে ১১ জন, পটিয়ায় ২১ জন, বোয়ালখালীতে ২৬ জন, রাঙ্গুনিয়ায় ২৮ জন, রাউজানে ৩৫ জন, ফটিকছড়িতে ৩০ জন, হাটহাজারীতে ৩৬ জন, সীতাকুণ্ডে ৫০ জন, মিরসরাইয়ে ২৭ জন ও সন্দ্বীপে ১৪ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে।

রেকর্ড শনাক্ত /বিএম/আ.মা