রেজিস্ট্রেশন ছাড়াই টিকা নিতে পারবেন পোশাক শ্রমিকরা

রেজিস্ট্রেশন ছাড়াই টিকা

বাংলাদেশ মেইল ::

দেশের পোশাক কারখানাগুলোতে কর্মরত শ্রমিকরা কোনো ধরনের রেজিস্ট্রেশন  ছাড়াই টিকা নিতে পারবেন।  কেবলমাত্র জাতীয় পরিচয়পত্র দেখিয়ে তারা করোনার টিকা নিতে পারবেন।

রোববার (১৮ জুলাই) থেকে পোশাক শ্রমিকদের করোনা ভ্যাকসিন প্রদান কার্যক্রম উদ্বোধন করা হবে গাজীপুরে। প্রথম পর্যায়ে স্থানীয় চারটি পোশাক কারখানার শ্রমিকরা সরাসরি কারখানায় থেকেই করোনা টিকা নিতে পারবেন।

গাজীপুরের সিভিল সার্জন মো. খায়রুজ্জামান জানান, রোববার সকালে পোশাক শ্রমিকদের করোনা (মডার্না) ভ্যাকসিন প্রদান কার্যক্রম উদ্বোধন করা হবে। প্রাথমিক পর্যায়ে এ দিন থেকে গাজীপুর মহানগরের তুসুকা ডেনিম, তুসুকা ট্রাউজার, স্প্যারো এপারেলস ও রোজভ্যালী নামের চারটি পোশাক কারখানার শ্রমিকদের (যাদের বয়স কমপক্ষে ১৮ বছর) এ ভ্যাকসিন প্রয়োগ শুরু করা হবে।

গাজীপুর সিভিল সার্জন কার্যালয়ের ইপিআই সুপার মো. আমজাদ হোসেন জানান, টিকার জন্য এসব কারখানা থেকে শ্রমিকদের নাম, বয়স, এনআইডি নম্বরের তথ্য তালিকা সংগ্রহ করা হয়েছে। ঈদের আগে রোববার সকালে এ চার কারখানায় গিয়ে তালিকা মিলিয়ে শ্রমিকদের করোনা টিকা প্রয়োগ করা হবে।রেজিস্ট্রেশন ছাড়াই টিকা টিকা নেবার সুযোগ পাবেন গার্মেন্টস শ্রমিকরা।

তিনি বলেন, তালিকানুয়ায়ী তুসুকা ডেনিম ও তুসুকা ট্রাউজার কারখানায় ৬ হাজার দুইশ’, স্প্যারো পোশাক কারখানার ৪ হাজার এবং রোজ ভ্যালী কারখানার ২ হাজার ৭শ’ শ্রমিকের তালিকা পাওয়া গেছে।

গাজীপুরের জেলা প্রশাসক ও জেলা কোভিড-১৯ নিয়ন্ত্রণ কমিটির আহ্বায়ক এসএম তরিকুল ইসলাম জানান, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সম্মতি নিয়ে রোববার থেকেই গাজীপুরে এ ভ্যাকসিন প্রয়োগ কর্মসূচি শুরু করা হচ্ছে। ঈদের আগে ১৯ জুলাই পর্যন্ত এ কার্যক্রম চলবে। পরে পোশাক কারখানা ছাড়াও অন্যন্য কারখানার শ্রমিক-কর্মকর্তা-কর্মচারীদের এ টিকার আওতায় আনা হবে।

রোববার সকালে কোনাবাড়ি এলাকায় তুসুকা ডেনিম কারখানায় গাজীপুরের মেয়র মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম, জেলা প্রশাসক এসএম তরিকুল ইসলাম এবং মহানগর পুলিশ কমিশনার/প্রতিনিধি উপস্থিত থেকে এ কর্মসূচি উদ্বোধন করবেন।

রেজিস্ট্রেশন ছাড়াই টিকা/ বিএম