আপনজন নয়, করোনায় মৃতের সৎকার করলেন তরুণেরা

সৎকার

বাংলাদেশ মেইল ::

কু‌ষ্টিয়ার করোনায় মারা গেছেন খোকসা ক‌লে‌জের সা‌বেক ল‌্যাব সহকারী ও ভেষজ চি‌কিৎসক নির্মল কুমার নন্দী ওর‌ফে পটল নন্দী (৭৫)। ‌শ‌নিবার (২৪ জুল‌াই) দিনগত রাত ১২ টা ৪৫ মি‌নি‌টে ঢাকার এক‌টি হাসপাতা‌লে চি‌কিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তি‌নি।

মারা যাওয়ার প‌রে তার মরদেহ সৎকার নি‌য়ে বা‌ধে বিপ‌ত্তি। স্বজনরা তার সৎকারের দায়িত্ব এড়িয়ে গেলেও ক‌য়েকজন তরু‌ণ উদ্যো‌গ নেন মরদেহ সমা‌হিত করার।
নির্মল কুমার নন্দী খোকসা পৌর এলাকার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের দীনেশ কুমার নন্দীর ছেলে।
জানা গেছে, প্রায় তিন সপ্তাহ আগে নির্মল নন্দী করোনায় আক্রান্ত হন। প্রথমে তাকে কুষ্টিয়ার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তার অবস্থার অবনতি হলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। সেখানেই চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তি‌নি।
রোববার সকালে তার মৃতদেহ জানিপুরে নিজ বাড়িতে আনা হয়। কিন্তু করোনার ভয়ে হিন্দু সমাজের লোকেরা তার সৎকার করতে না আসায় ঘটে বিপত্তি। অবশেষে কয়েক ঘণ্টা পর প্রয়াত প্রদর্শকের বাড়িতে মা‌টি খুঁড়ে তাকে সমাহিত করা হয়।
মরদেহ সৎকা‌রে নেতৃত্ব দেন স্থানীয় বিশিষ্ট ক্রীড়া ব‌্যক্তিত্ব নাফিজ আহমেদ খান রাজু। এছাড়াও ছিলেন মুস্তাফিজুর রহমান মুস্তাক, সুমন, জনি, প্রদীপ, নজমুল, পলাশ, জিয়া, মুন্না, এরশাদ।