আদালতে একই পোষাকে পরীমনি, দুদিনের রিমান্ড

বাংলাদেশ মেইল ::

একই পোষাকে পরীমনি আদালতে হাজির হয়েছেন। এই নিয়ে আদালতে দুই পক্ষের আইনজীবীদের মধ্যে তর্ক বিতর্ক হয়। যুক্তি তর্কের শেষে চিত্রনায়িকা পরীমনিকে ফের দুদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

মঙ্গলবার (১০ আগস্ট)  দুপুরে ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবব্রত বিশ্বাস শুনানি শেষে এ আদেশ দেন। একই মামলায় তার সহযোগী আশরাফুল ইসলাম দীপুরও দুদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়েছে।

পরে রিমান্ড শুনানি শেষে আদালত থেকে বের হওয়ার সময় চিৎকার করেন পরীমনি। এ সময় তিনি বলতে থাকেন, ‘আমি নির্দোষ, আমাকে ইচ্ছা করে ফাঁসানো হয়েছে। আমাকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হয়েছে।’

এরপরই আদালতের গারদখানায় নিয়ে যাওয়া হয় নায়িকাকে। এসময় তাকে একই পোষাকে দেখা যায়। গ্রেফতার হবার দিনের পোষাক পরে আদালতে আসা কুটচাল বলছেন রাষ্ট্র পক্ষের আইনজীবীরা। অন্যদিকে পরীরমনির আইনজীবী আদালতে দাবি করেছেন পরীমনিকে পোষাক পরিবর্তনের সুযোগ দেয়া হয়নি।

গত বৃহস্পতিবার পরীমণিকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। এরপর মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য তাদের সাতদিন রিমান্ডের আবেদন করা হয়। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম মামুনুর রশীদ তার চারদিন রিমান্ড মঞ্জুর করেন। রিমান্ড শেষে আজ মঙ্গলবার পরীমনিকে আদালতে তোলা হয়েছে। দ্বিতীয় দফায় তার রিমান্ড শুনানি চলছে।

এদিকে মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে পরীমনির বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে। কোথাও পরীমনি মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত বলে উল্লেখ করা হয়নি। এমন যুক্তি আদালতে উপস্থাপন করে  রিমান্ডের বিরোধিতা করেন পরীমনির আইনজীবী।

উল্লেখ্য, গত ৪ আগস্ট রাতে রাজধানীর বনানীতে নিজ বাসা থেকে মাদকসহ গ্রেফতার করা হয় আলোচিত-সমালোচিত চিত্রনায়িকা পরীমনিকে।