পোর্ট সিটি সিনিয়র ক্লাবের উদ্যোগে শেখ কামালের ৭২ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন

জন্মবার্ষিকী

বাংলাদেশ মেইল ::

পোর্ট সিটি সিনিয়র ক্লাবের উদ্যোগে শহীদ ক্যাপ্টেন শেখ কামালের ৭২ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন করা হয়েছে।

শুক্রবার  (৫ আগষ্ট)  ক্লাবের নিজস্ব হল রুমে সর্বকালের শ্রষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের জ্যেষ্ঠ পুত্র মহান স্বধীনতা যুদ্ধের বীর মুক্তিযোদ্ধা দেশবরণ্য ক্রীড়া সংগঠক,সাংস্কৃতিক ব্যাক্তিত্ব শহীদ শেখ কামালের ৭২ তম জন্মদিন উপলক্ষে দোওয়া মাহফিল,অসহায় মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত  হয়।

দোয়া মাহফিল শেষে পোর্ট সিটি সিনিয়র ক্লাবের সভাপতি রুহুল আমিন তপনের সভাপতিত্বে এবং সাধারন সম্পাদক উত্তম নাগের পরিচালনায় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ক্লাবের পৃষ্ঠপোষক বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ চট্রগ্রাম মহানগর কমিটির বন ও পরিবেশ সম্পাদক মসিউর রহমান চৌধুরী।

এসময় বক্তব্য রাখেন উপদেষ্টা সাইদুর রহমান চৌধুরী,কেশব ঘোষ,মহিউদ্দিন শাহজাহান,সুজিত সেন,সুব্রত পাল, প্রণব পাল,উত্তম রায়,পুলক চৌধুরী, তমাল দাশ সহ প্রমূখ নেতৃবৃন্দ।

সভায় প্রধান অতিথি মসিউর রহমান চৌধুরী বলেন, ১৯৪৯ সালের ৫ আগষ্ট টুঙ্গিপাড়ায় জন্ম নেওয়া শহীদ ক্যাপটেন শেখ কামাল ছিলেন উচ্চ শিক্ষিত স্মার্ট বিনয়ী ও আদব কায়দা সম্পন্ন তরুণ।মহান মুক্তিযুদ্ধে তাঁর বীরত্ব গাঁথা অবস্মরনীয় হয়ে থাকবে।

তিনি বলেন, শহীদ শেখ কামাল ৬৬’র ছয় দফা আন্দোলন ১১ দফা আন্দোলন সহ মহান স্বাধীনতা যুদ্ধ পর্যন্ত প্রতিটি আন্দোলন সংগ্রামে বলিষ্ঠ ভূমিকা পালন করেন।  ক্রীড়া পাগল শহীদ শেখ কামাল ছিলেন দেশ বরণ্য ক্রীড়া সংগঠক।১৯৭২ সালে তিনি আবাহানী ক্রীড়া চক্র প্রতিষ্ঠা করেন। সাংস্কৃতিক অঙনেও তিনি সমান জনপ্রিয় ছিলেন।সাংস্কৃতিক অঙনে তাঁর ত্রিমুখী প্রতিভা ছিল। ভরাট কন্ঠের গায়ক, অভিনতা এবং সেতার বাদক ছিলেন তিনি।পুরো পাকিস্তান আন্তঃ কলেজ সেতার ও গান প্রতিযোগীতায় শহীদ শেখ কামাল রানার্স আপ ছিলেন।বিরল প্রতিভার ক্ষনজন্মা শেখ কামাল ৭৫ এর ১৫ আগস্ট নির্মম হত্যাকান্ডের শিকার হলেন।

আলোচনা সভায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সহ শহীদ ক্যাপটেন শেখ কামাল ও তাদর পরিবারের নিহত সকল শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করা হয়।

জন্মবার্ষিকী-র আলোচনা শেষে দুস্থ অসহায় মানুষের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়।