চট্টগ্রামে বাংলাদেশ ব্যাংকের দেয়াল ধস, আহত ৭

দেয়াল

বাংলাদেশ মেইল::

বাংলাদেশ ব্যাংক চট্টগ্রামের প্রধান কার্যালয়ের সীমানা প্রাচীরের গ্রিল পিলারসহ ধসে পড়ে ৭ জন আহত হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে দুজনের অবস্থা গুরুতর। একটি কাভার্ড ভ্যানের ধাক্কায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। আজ রোববার বেলা ১২টার দিকে ভ্যানটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দেয়ালে ধাক্কা দিলে সীমানা প্রাচীরের ওপরের গ্রিল আনুমানিক ১০০ ফুটের মতো ধসে পাশের ফুটপাতে পড়ে।

দেয়াল ধসে আহতরা হলেন বায়েজিদ আমিন জুট মিলের সেন্টু মোহাম্মদ (২৮), সদরঘাটের আজিজ কলোনীর মোঃ সেলিম (৩১), দীপক ধর (২৮), বাকলিয়ার বেলাল (৩৫), ও পলাশ (৫৫)। এ ঘটনায় গুরুতর আহত দুজন পুরুষের পরিচয় এখনো পাওয়া যায়নি। তবে তাঁদের একজনের আনুমানিক বয়স ৬০ ও অন্যজনের আনুমানিক-৪০।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বেলা ১২টার দিকে হঠাৎ করেই কোতোয়ালি থানার বিপরীতে ফুটপাতের ওপর ব্যাংকের দেয়াল এর ওপরের গ্রিলের অংশটি বিকট শব্দে ধসে পড়ে। এ সময় সেখানে তৈরি হয় আতঙ্ক আর ছোটাছুটি। এ সময় দেয়ালঘেঁষে বসা ফুটপাতের কয়েকজন হকার ও পথচারী আহত হন।

খবর পেয়ে নন্দনকানন ফায়ার সার্ভিস থেকে একটি গাড়ি ঘটনাস্থলে গিয়ে উদ্ধার কাজ চালায়। স্টেশনটির সিনিয়র অফিসার মোহাম্মদ আলী  বলেন, আমরা খবর পেয়ে ১০ মিনিটেই ঘটনাস্থলে যাই। পরে গিয়ে দেখি সেখানে ১০০ ফুটের মতো সীমানা প্রাচীরের ওপরের অংশ ধসে পড়েছে। এ ঘটনায় কয়েকজন আহত হলেও কেউ মারা যাননি। ভাগ্য ভালো যে পুরো দেয়ালটি ধসে পড়েনি।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ নুরুল আলম আশিক জানান, এখন পর্যন্ত এ ঘটনায় সাতজন এসেছে। তাদের মধ্যে একজনকে ২৬ নম্বর ওয়ার্ডে আরেকজনকে ২৮ নম্বর ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। বাকি পাঁচজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া  হচ্ছে।

বাংলাদেশ ব্যাংক চট্টগ্রামের জেনারেল ম্যানেজার শামসুল হক বলেন, ব্যাংকের ভেতরে ট্রেজারির চালান পরিবহন করতে আসা একটি বড় কাভার্ড ভ্যান এই দুর্ঘটনা ঘটিয়েছে। চালক সম্ভবত নতুন হওয়ায় তিনি গাড়ি ঘোরানোর সময় দেয়ালে ধাক্কা দেন। এতে আমাদের সীমানা প্রাচীরের দেয়ালের ওপরের গ্রিল ভেঙে নিচে ফুটপাতে পড়ে। এ ঘটনায় আমাদের ব্যাংকের কেউ আহত হননি। কোতোয়ালি থানার ওসি নেজাম উদ্দীন জানান, এ ঘটনায় কাভার্ড ভ্যান চালককে আটকের পাশাপাশি গাড়িটিও জব্দ করা হয়েছে।