এক রশিতে ঝুলছিল দুজন
বরগুনায় স্বামী ও স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা

বাংলাদেশ মেইল ::

বরগুনার বেতাগী উপজেলায় স্বামী ও স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আজ শনিবার সকালে উপজেলার মোকামিয়া ইউনিয়নের জোয়ার করুণা এলাকায় ওই দম্পতির বাড়ির শোবার ঘর থেকে তাঁদের লাশ উদ্ধার করা হয়।

লাশ উদ্ধার হওয়া ওই দম্পতি হলেন আসলাম হাওলাদার (২২) ও তাঁর স্ত্রী তামান্না বেগম (১৮)। আসলাম জোয়ার করুণা এলাকার মনির হাওলাদারের ছেলে ও তামান্না একই এলাকার হিরু হাওলাদারের মেয়ে।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, এক বছর আগে বাড়ির পাশের হিরু হাওলাদারের মেয়ে তামান্নার সঙ্গে আসলামের প্রেমের সম্পর্কের পর তাঁদের বিয়ে হয়। আসলামের বাবা ঢাকায় রডের মিলে কাজ করেন। আসলাম তাঁর মা ও স্ত্রীকে নিয়ে বাড়িতে থাকতেন। দুই দিন আগে আসলামের মা তাঁর বাবার বাড়িতে বেড়াতে যাওয়ায় বাড়িতে ছিলেন না। আজ সকালে প্রতিবেশীরা ওই দম্পতির কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে ঘরে প্রবেশ করেন। এ সময় দোতলায় তাঁদের শোবার ঘরে ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে তাঁরা পুলিশকে খবর দেন। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাঁদের লাশ উদ্ধার করে। উদ্ধারের সময় তাঁদের লাশ এক রশিতে ঝুলছিল।

বেতাগী থানা–পুলিশের উপপরিদর্শক মো. শাখাওয়াত হোসেন বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে বাড়ির দোতলার একটি কক্ষ থেকে তাঁদের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করি। রহস্য উন্মোচনে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) একটি দল বিষয়টি তদন্ত করছে। বরগুনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর-বেতাগী) মেহেদী হাছান বলেন, স্থানীয় লোকজনের মাধ্যমে খবর পেয়ে ওই দম্পতির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। সুরতহাল শেষে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ বরগুনা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

তামান্নার মা জেসমিন আক্তার  বলেন, ‘এক বছর আগে আসলামের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কের পর তামান্নার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে তামান্নার সঙ্গে আমাদের পরিবারের কোনো যোগাযোগ ছিল না।