মোবাইলের আইএমইআই পরিবর্তনকারী চক্রের তিন সদস্য গ্রেফতার

বাংলাদেশ মেইল ::

নগরের সংঘবদ্ধ চোরাই মোবাইল ক্রয়-বিক্রয় ও মোবাইলের আইএমইআই পরিবর্তনকারী চক্রের তিন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে কোতোয়ালী থানা পুলিশ। তাদের কাছ থেকে ১১৭টি মোবাইল ফোন সেট, ৩টি ল্যাপটপ উদ্ধার করা হয়েছে।

বুধবার (৬ মার্চ) বিকেলে তাদের গ্রেফতার পর বৃহস্পতিবার (৭ মার্চ) সাংবাদিকদের এ তথ্য জানানো হয়।

গ্রেফতার আসামিরা হলেন- নগরের কোতোয়ালী থানার বলুয়ারদিঘীর পূর্ব পাড়ের মো সেলিমের ছেলে সাজ্জাদ (২০)।

নগরের চান্দগাঁও আবাসিক এলাকার কবির আহমেদের ছেলে হাবিবুল্লাহ মিজবাহ (২৫)। ফটিকছড়ি পৌরসভার উত্তর ধুরুং গ্রামের বদিউল আলমের ছেলে দোকানকর্মী মো. রাশেদ (২০)।

পুলিশ জানিয়েছেন, গ্রেফতারের মধ্যে সাজ্জাদ চোরাই মোবাইল সংগ্রহ করে আইএমইআই বদলের পর বিক্রি করেন। আর একটি মোবাইলের দোকানের মালিক হাবিবুল্লাহ মিজবাহ ও কর্মচারী রাশেদ আইএমইআই ‘ইন্টারন্যাশনাল মোবাইল ইকুইপমেন্ট আইডিন্টিটি’ নম্বর বদলের কাজ করেন।

কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহিদুল কবির জানান, অভিযান চালিয়ে ১১৭টি চোরাই মোবাইলসহ ৩ চোরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতার সাজ্জাদের তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে সিডিএ মার্কেট রয়েল প্লাজার ইনোভেটিভ ফোন কেয়ার নামের দোকানের মালিক হাবিবুল্লাহ মিজবাহ ও তার কর্মচারী রাশেদকে আইএমইআই বদলে দেওয়ার অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়েছে। টাকার বিনিময়ে বিভিন্ন দামি ব্র্যান্ডের চোরাই মোবাইল আইএমইআই বদলে দেওয়ার বিষয়টি হাবিবুল্লাহ মিজবাহ স্বীকার করেছেন।

গ্রেফতার তিনজনসহ চারজনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন মামলা করা হয়েছে।