হাটহাজারীতে আইপিএল নিয়ে জুয়াখেলার জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় যুবক নিহত

বাংলাদেশ মেইল ::

চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে জুয়াখেলাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় ফারুক নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার (৫ এপ্রিল) দিবাগত রাতে উপজেলার আমানবাজার জয়নব ক্লাবের পশ্চিমে নাজিম উদ্দিনের কলোনিতে হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি সংঘটিত হয়। নিহত ফারুক কুমিল্লার লাকসাম এলাকার বাচা মিয়ার পুত্র। সে বাবা ও মায়ের সাথে ওই কলোনিতে ভাড়ায় থাকতো। ফারুকের দুই স্ত্রী ও চার সন্তান রয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী চা দোকানদার ফয়সাল নামের এক ব্যক্তি বলেন, রাতে টিভিতে আইপিএল খেলা চলছিল। এটা নিয়ে ফারুক ও ফয়সাল এর মধ্যে পছন্দ-অপছন্দের দল সমর্থন নিয়ে নানা তর্কাতর্কি চলছিল। এক পর্যায়ে উভয়ের মধ্যে হাতাহাতির সংঘটিত হয়। এতে ফায়সাল হালকা হতাহত হয়ে পালিয়ে যায়। পরে ঘন্টাখানেক পর ফায়সাল তার তার দলবল নিয়ে ফারুকের ওপর হামলা চালায়। মার খেয়ে ফারুক বাসায় পালিয়ে গেলেও সেখানে তাঁরা হামলা চালিয়ে ফারুকের মৃত্যু নিশ্চিত করে।

নিহতের মা সুরমা বেগম বলেন, দোকানে কি হয়েছিল আমি জানিনা! ফায়সাল গ্রুপ আমার ছেলেকে শেষ করেদিছে! আমি তার বিচার চাই। তিনি আরও বলেন, তারা আমার ছেলেকে শুধু মুড়ায়ছে, বুকে পারায়ইছে, আমার ছেলে প্রাণ বাঁচানোর জন্য ঘরে ঢুকে পড়লে তাঁরা ঘরের দরজা কেটে ভেতরে ঢুকে আমার ছেলের চোখে ঘুষি মারে। অন্ডকোষে ইচ্ছামত পারায়ছে। আমার মেয়ে তার ভাইয়ের প্রাণ বাঁচাতে গেলে হামলাকারীরা আমার মেয়েকে বেধড়ক মারধর করে। হত্যার উদ্দেশ্যে গলা টিপে ধরে। ফায়সাল, সৃষ্টি, নাঈম, আরিফ, হৃদয়, জিহাদ এরা সবাই মিলে ফারুককে মেরে ফেলছে। আমার মেয়ে এখন চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি আছে।

এবিষয়ে হাটহাজারী মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আইপিএল খেলায় পছন্দ-অপছন্দ দল সমর্থনে প্রতিপক্ষের হামলায় ফারুক নামের এক চা দোকানদার নিহত হয়েছে। ঘটনার পর মঈনুদ্দিন চিশতী ও আসিফ নামের দু’জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। মামলা প্রক্রিয়াধীন। তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।