চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে
বাকির টাকা চাওয়ায় বাকির খাতা গায়েব করলেন ইন্টার্নি চিকিৎসকদের নেতা

বাংলাদেশ মেইল ::

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের ছাত্রাবাসের ক্যান্টিনে বছর বছর বাকিতে খেয়ে টাকা চাওয়ার কারণ  উল্টো ক্যান্টিন ম্যানেজারকে নাজাহাল ও চাঁদা দাবির অভিযোগ উঠেছে আরাফ নামের এক ইন্টার্ন চিকিৎসকের বিরুদ্ধে। ছাত্রাবাসের ক্যান্টিন  ম্যানেজার মোহাম্মদ  রফিকের অভিযোগ বকেয়া টাকা চাইতে গেলে উল্টো চাঁদা চেয়ে বসেন আরাফ৷ বাকির খাতাটিও তার কাছ থেকে কেড়ে নিয়ে নিয়েছেন।

জানতে চাইলে ক্যান্টিন ম্যানেজার রফিক বলেন, ‘বাকির টাকা চাওয়ার কারণে তিনি আমাকে রুমে ডেকে নিয়ে চাঁদা দাবি করেছেন। আমার পকেট হাতিয়ে টাকা নিতে চেয়েছেন। টাকা না পাওয়ায় বাকির খাতাটা কেড়ে নিয়েছেন।’

ডাঃ আরাফ নামের চমেকের এই শিক্ষানবিশ  চিকিৎসক ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত। পাশাপাশি তিনি সম্প্রতি গজিয়ে উঠা  ইন্টার্ন চিকিৎসক পরিষদের নেতা। রাজনীতিতে তিনি শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের অনুসারী বলে জানা গেছে।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ ছাত্রাবাসের  বেশকিছু ছাত্রদের সাথে কথা বলে জানা যায়, ক্যান্টিনে  সাধারণত ছাত্রদের বাকি থাকে ২/৩ হাজার টাকা। কিন্তু আরাফের কাছে ৫০ হাজার টাকার উপরে বাকি জমেছে।

এই সংক্রান্ত একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজের সাধারণ শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিষয়টি নিয়ে বিরূপ প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।

এই বিষয়ে ডাক্তার শাহানা আক্তার বলেন, ‘ একটি ভিডিও বিভিন্ন জনের কাছে পাঠানো হলেও ক্যান্টিন ম্যানেজার রফিক কোন ধরনের লিখিত অভিযোগ করেনি। লিখিত অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে। ‘