খুলশী ক্লাবে সহ-সভাপতিসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে পাহাড় কাটার অভিযোগ পরিবেশ অধিদপ্তরের

বাংলাদেশ মেইল ::

চট্টগ্রামের খুলশী ক্লাবের সহ-সভাপতিসহ আট জনের বিরুদ্ধে পাহাড় কাটার অভিযোগে মামলা করেছে পরিবেশ অধিদপ্তর। গতকাল (১৫ ফেব্রুয়ারি) অভিযান চলাকালে পাহাড় কাটার সময় ৬ শ্রমিককে হাতেনাতে আটক করে পুলিশ।

তবে এ ঘটনায় পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালকের বিরুদ্ধে ঘুষ দাবিসহ মুক্তিযোদ্ধার পরিবারকে নিয়ে কটুক্তির অভিযোগ করেছে খুলশী ক্লাব কর্তৃপক্ষ। একইভাবে ক্লাবের সহ-সভাপতির বিরুদ্ধে অধিদপ্তরের কার্যালয়ে গিয়ে অত্যন্ত আপত্তিকর ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ আচরণ করার পাল্টা অভিযোগ তুলেছে পরিবেশ অধিদপ্তর।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, পাহাড় কাটার অভিযোগ পেয়ে খুলশীর ফয়’স লেক এলাকায় পুলিশের সহযোগিতায় অভিযান চালান পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম মহানগর কার্যালয়ের কর্মকর্তারা। সহযোগিতা করে খুলশী থানা পুলিশ। অভিযান চলাকালে খুলশী ক্লাবের পাশে একটি পাহাড় ‘কাটার’ সময় ৬ জন শ্রমিককে হাতেনাতে আটক করা হয়। এ ঘটনায় পাহাড় কাটার অভিযোগ এনে ওদিন বিকেলে ক্লাবের সহ-সভাপতি ও কেয়ারটেকারসহ মোট আটজনকে আসামি করে মামলা করা হয়।

খুলশী থানায় মামলাটি করেন পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম মহানগর কার্যালয়ের পরিদর্শক মো. সাখাওয়াত হোসাইন। ক্লাবের সহ-সভাপতি রফিক আটককৃত শ্রমিকদের ছাড়িয়ে আনতে গেলে বিষয়টি মীমাংসায় মোটা অংকের ঘুষ দাবি করেছে পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম মহানগরের পরিচালক— এমন অভিযোগ তুলেছে ক্লাবটির সহ-সভাপতির।

খুলশী ক্লাবের সহ সভাপতি মো. রফিক উদ্দিন বাবুল ভূঁইয়া অভিযোগ করে বলেন, ‘এখানে ওয়াকওয়ে ও বিউটিফিকেশনের কাজ চলছিল। সে হিসাবে বাউন্ডারি ওয়ালসহ চার ফিট ওয়াকওয়ে করার জন্য যে টিলাটা আছে সেটা ড্রেসিংয়ের কাজ চলছিল। পরিবেশ অধিদপ্তরের লোকজন সকালে আসছে তাদেরকে আমরা দেখিয়েছি। পরবর্তীতে পুলিশ এনে আমাদের শ্রমিকদের ধরে নিয়ে গেছে। ঘটনা জানতে পেরে দ্রুত পরিবেশ অধিদপ্তরে হাজির হয়ে শ্রমিকদের ছেড়ে দেওয়ার অনুরোধ জানাই। সেসময় হিল্লোল বিশ্বাস আমাদের কাছে দুই লাখ দাবি করেন। একই সাথে আমাদের মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে নিয়ে কটুক্তি করেছেন ওই কর্মকর্তা।’

এ বিষয়ে পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম মহানগর কার্যালয়ের পরিচালক হিল্লোল বিশ্বাস জানান, পাহাড় কাটার সময় ৬ জনকে আটক করার পর তাদের পরিবেশ অধিদপ্তরে নেওয়া হলে সেখান থেকে তাদের ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন রফিক উদ্দিন বাবুল ভূঁইয়া। ঘটনা বেগতিক দেখে তিনি কৌশলে পালিয়ে যান। পরে বাবুলসহ ৮ জনকে আসামি করে খুলশী থানায় মামলা করা হয়।

এদিকে৷  পরিবেশের মামলায় বৃহস্পতিবার দুপুরে আটক শ্রমিকদের আদালতে হাজির করে পুলিশ। খুলশী ক্লাব কর্তৃপক্ষ তাদের জামিনের ব্যবস্থা করে। এ ঘটনায় পরিবেশ অধিদপ্তরের ঢাকা অফিসে অভিযোগ করা হবে বলে জানায় ক্লাব কর্তৃপক্ষ।