পঞ্চমবারের মত দেশে পালিত হচ্ছে ‘জাতীয় ভোটার দিবস’

বাংলাদেশ মেইল ::

পঞ্চমবারের মত আজ ২ মার্চ (বৃহস্পতিবার) সারা দেশে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হচ্ছে- ‘জাতীয় ভোটার দিবস’। দিবসটি পালনের সব প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এবারের ভোটার দিবসের প্রতিপাদ্য ‘ভোটার হব নিয়ম মেনে, ভোট দিব যোগ্যজনে’। জাতীয় ভোটার দিবসে ২০২২ সালের ভোটার তালিকা হালনাগাদের চূড়ান্ত ভোটার সংখ্যা প্রকাশ করা হবে।

দিবসটি উপলক্ষ্যে আজ সকাল সাড়ে ৮টায় নির্বাচন ভবনের সামনের চত্বর হতে বর্ণাঢ্য র‍্যালির মাধ্যমে প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ (সিইসি) অন্যান্য কমিশনাররা ভোটার দিবসের কার্যক্রম উদ্বোধন করেন।

ভোটার দিবস উপলক্ষ্যে নির্বাচন কমিশনার আহসান হাবিব খান জানান, ভয়ভীতিহীন নির্বাচন ও নির্বিঘ্ন পরিবেশ করতে নির্বাচন কমিশন সর্বোচ্চ তৎপর। নিজেদের মেয়াদের প্রথম বছরে এ পর্যন্ত যত নির্বাচন হয়েছে তাতে যেখানে বাধা, অনিয়মের অভিযোগ এসেছে সেখানেই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

তিনি আরও জানান, এ পর্যন্ত বর্তমান ইসির অধীনে পাঁচ শতাধিক নির্বাচন হয়েছে; যার সিংহভাগই ইভিএমে। এসব ভোটে নির্ভরযোগ্য কোনো অভিযোগ তো আসেইনি এবং সংক্ষুব্ধ কেউ আদালতেও দ্বারস্থ হননি।

সব দলকে ভোটে আসার বিষয়ে ইসির আহ্বান বরাবরই অব্যাহত থাকে জানিয়ে এ নির্বাচন কমিশনার বলেন, “ভোটাধিকার মুখের কথা নয়, এটাকে অর্থবহ করতে আমাদের সব ধরনের উদ্যোগ, সর্বোচ্চ সদিচ্ছা থাকবে। আমরা চাই দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনসহ সব নির্বাচন হোক অবাধ, সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ ও অংশগ্রহণমূলক।”

এবারের ভোটার দিবস উপলক্ষ্যে আজ বিকাল ৪টায় নির্বাচন ভবন অডিটরিয়ামে ভোটার দিবসের গুরুত্ব ও তাত্পর্য নিয়ে এক আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হবে। প্রধান নির্বাচন কমিশনার প্রধান অতিথি হিসেবে এবং নির্বাচন কমিশনারবৃন্দ বিশেষ অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন। এছাড়া সন্ধ্যা ৬টা ১৫ মিনিটে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে। দক্ষতা ও কৃতিত্বের সঙ্গে দায়িত্ব পালনের জন্য নির্বাচন কমিশনের তিন জন চৌকস কর্মকর্তাকে জাতীয় নির্বাচনী পদক প্রদান করা হবে। এছাড়া মাঠপর্যায়ের কার্যালয়সমূহে র‍্যালি ও আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে।