কোতোয়ালী জোনের এসির নির্দেশে চুরি হওয়া স্বর্ণালংকার উদ্ধার, গ্রেফতার ২

তানভীর আহমেদ :::

চট্টগ্রামের কোতোয়ালী জোনের এসির নির্দেশে চুরি হওয়া স্বর্ণালংকার উদ্ধার সহ ২ জন কে গ্রেফতার করা হয়েছে ।

নগরীর সদরঘাট থানাধীন আইস ফ্যাক্টরী রোড এলাকার কে.এম ড্রিমলেন্ড টাওয়ারের ৪র্থ তলার বাসা থেকে চুরি হওয়া স্বর্ণালংকার উদ্ধার সহ শারমিন আক্তার কলি (২২) ও মোঃ মনির উদ্দিন (৩২) নামের দুজনকে গ্রেফতার করেছে সদরঘাট থানা পুলিশ।

রোববার (৩ সেপ্টেম্বর) বিকাল ৫টার সময় চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামি শারমিন আক্তার কলি, কক্সবাজার জেলার, মহেশখালী থানাধীন, শাপলাপুর মৌলভী কাটা গ্রামের, মিঠাছড়ি এলাকার, এবাদুত এর বাপের বাড়ীর মোঃ আনোয়ারের মেয়ে এবং আসামি মোঃ মনির উদ্দিন, একই থানাধীন মাতার বাড়ীর, উত্তর রাজঘাট গ্রামের সালাউদ্দিনের বাপের বাড়ীর মোক্তার আহম্মদের ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত ৩১ আগস্ট বিকাল ৩ টায় ঐ বাসার গৃহকর্তী তার ছেলে ও মেয়েকে নিয়ে বাসার দরজা তালাবদ্ধ করে বাসা থেকে বের হয়ে যান। ওই সময় বাসায় কাজের মেয়ে শারমিন আক্তার কলি ও তার অসুস্থ শ্বাশুড়ি বাসায় ছিলেন। পরে তিনি হ বিকেল সাড়ে পাঁচটায় বাসায় এসে কাজের মেয়েকে বাসায় দেখতে না পেয়ে তার ব্যবহৃত মোবাইলে ফোন দেওয়ার পর তাকে না পেয়ে ঘরের গৃহিণী রুমে ঢুকে দেখেন তার রুমে থাকা কাঠের আলমারী খোলা এবং আলমারীতে থাকা মালামাল গুলো এলোমেলো ভাবে পড়ে আছে। এমন অবস্থায় দেখে তিনি তার আলমারীতে থাকা জিনিসপত্র খোঁজাখুঁজি করে দেখেন যে, আলমারীতে থাকা প্রায় সাড়ে ২১ ভরি ওজনের স্বর্ণালংকার তার আলমারীতে নেই। পরবর্তীতে কাজের মেয়ে শারমিন আক্তার কলি বাসায় কেউ না থাকার সুযোগে কৌশলে আলমারী থেকে স্বর্ণালংকার চুরি করে পালিয়েছে মর্মে ওই ঘরের গৃহিণী বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

পরবর্তীতে কোতোয়ালি জোনের সহকারী পুলিশ কমিশনার অতনু চক্রবর্তী ও সদরঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ গোলাম রাব্বানী নির্দেশনায় উপ-পরিদর্শক নিদর্শন বড়ুয়া’র নেতৃত্বে, এএসআই সাজু প্রতাপ দাশ, এএসআই মঞ্জুর হাসান, এএসআই রাজীব রুদ্র ও দৃষ্টি চৌধুরী চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে চুরি হওয়া সাড়ে ১২ ভরি স্বর্ণালংকার উদ্ধার সহ আসামি শারমিন আক্তার কলি ও মোঃ মনির উদ্দিনকে গ্রেফতার করে ।

বাংলাদেশ মেইল /নাদিরা শিমু/Ns