জিম্বাবুয়েকে আড়াইশর আগেই আটকে রাখল বাংলাদেশ 

বাংলাদেশ  মেইল::

প্রস্তুতি ম্যাচে চোটে পড়া মোস্তাফিজুর রহমান আজও খেলতে নামতে পারেননি। তবে তাতে খুব বেশি চিন্তিত হতে হয়নি বাংলাদেশকে। মোস্তাফিজের জায়গায় একাদশে সুযোগ পাওয়া আরেক তরুণ পেসার শরিফুল ইসলাম দুর্দান্ত বোলিং করেছেন। শরিফুলের ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ের দিনে তাসকিন আহমেদ, সাকিব আল হাসানরাও ছিলে স্ব-প্রতিভ। সব মিলিয়ে জিম্বাবুয়েকে আড়াইশর আগেই আটকে রেখেছে বাংলাদেশ।

 

রোববার (১৮ জুলাই) হারারের স্পোর্টস ক্লাব মাঠে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে আগে ব্যাটিং করা জিম্বাবুয়েকে ২৪০ রানেই আটকে রেখেছে বাংলাদেশ। প্রথম ওয়ানডেতে বাংলাদেশ প্রথমে ব্যাটিং করে ২৭৬ রান তুলেছিল তামিম ইকবালের দল। সে হিসেবে আজই সিরিজ নিশ্চিত করার ভালো সুযোগ তামিমদের সামনে।

প্রথম ওয়ানডের মতো আজও টস জিতেছিলেন জিম্বাবুয়ান অধিনায়ক ব্রেন্ডন টেলর। প্রথম ওয়াডেতে টস জিতে বোলিং নিলেও আজ ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন স্বাগতিক অধিনায়ক। তবে তার এই সাহসী সিদ্ধান্তে দলের ব্যাটাররা সাড়া দিতে পারল কই!

 

ইনিংসের প্রথম ওভারের শেষ বলে তিনাশে কামুনহুকামকে তুলে নেন তাসকিন আহমেদ। অপর ওপেনার তাদিওয়ানাশে মারুমানিকে বেশিদূর এগুতে দেননি মেহেদি হাসান মিরাজ। ব্যক্তিগত ১৩ রানে মিরাজের বলে সরাসরি বোল্ড তাদিওয়ানাশে। এরপর রেগিস চাকাভাকে নিয়ে ঘুরে দাঁড়ানোর একটা চেষ্টা করেছিলেন অধিনায়ক ব্রেন্ডন টেলর।

তৃতীয় উইকেটে দুজনের জুটি ছিল ৪৭ রানের। কিন্তু সেট হওয়া চাকাভা (২৬) সাকিবের দারুণ এক বলে বোল্ড হওয়ার পর টেলর হিট উইকেট আউট হলে আবারও বিপদে পড়ে জিম্বাবুয়ে। টেবলের আউটটি ছিল বড্ড অদ্ভুত। ২৫তম ওভারে শরিফুল ইসলালের শর্ট বলে আপার কাট করতে গিয়ে পারেননি। তারপর শটের শ্যাডো প্র্যাকটিস করে ব্যাট নামাতে গিয়ে স্টাম্পে আঘাত করে বসেন, বেলসও পড়ে যায়। নিয়ম মতে আউট। ফলে বাংলাদেশি ফিল্ডাররা আউটের আবেদন করেন। মাঠের দুই আম্পায়ার সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য তৃতীয় আম্পায়ারের স্মরনাপন্ন হন। আউট দিয়ে দেন তৃতীয় আম্পায়ার। দারুণ ফর্মে থাকা টেলর ফিরলে জিম্বাবুয়ের মেরুদণ্ডটা ভেঙে গিয়েছিল সেখানেই।

 

বাকিদের মধ্যে ওয়েসলি ভাধভেরে ও সিকান্দার রাজা চেষ্টা করে স্বাগতিকদের দুইশ পার করিয়েছেন শুধু। তামিম ইকবালের ইকবালের দর্শনীয় এক ক্যাচে আউট হওয়ার আগে ভাধভেরেই জিম্বাবুয়ের পক্ষে সর্বোচ্চ রান করেছেন। শরিফুল ইসলামের বলে পুল করতে গিয়ে আউট হওয়ার আগে ৬৩ বলে ৫৬ রান করেছেন। সিকান্দার রাজা ৪৪ বলে ৩৪ রান করেছেন। এছাড়া মায়ার্সের ব্যাট থেকে এসেছে ৩৪ রান।

শরিফুল দারুণ বোলিং করেছেন আজ। শুরুর দিকে একটু খরুচে ছিলেন, তবে পরে সেটা পুষিয়ে নিয়েছেন তরুণ পেসার। ১০ ওভারে ৪৬ রান খরচায় চার উইকেট নিয়েছেন তিনি। সাকিব ১০ ওভারে ৪২ রান খরচায় নিয়েছেন দুই উইকেট। তাসকিন ১০ ওভারে ৩৮ ও সাইফ উদ্দিন ১০ ওভারে ৫৪ রান নিয়ে নিয়েছেন একটি করে উইকেট